‘ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা উনিশ আর বিশ’

0 96

‘ব্রাজিল, অার্জেন্টিনা, স্পেন, পর্তুগাল, জার্মানি ও রাশিয়া- কমবেশি সব দেশের পতাকাই বিক্রি হচ্ছে। তবে তুলনামূলকভাবে ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার পতাকাই বেশি বিক্রি হচ্ছে। বিক্রির পরিমাণের পার্থক্য উনিশ আর বিশ।’

রাজধানীর নিউমার্কেটের সামনে দাঁড়িয়ে পতাকা বিক্রেতা কালাম মিয়া একজন উৎসুক ক্রেতাকে ঠিক এভাবেই বিশ্বকাপের পতাকা বিক্রির হিসাব দিচ্ছিলেন।

আগামী ১৪ জুন রাশিয়ার মস্কোতে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর বসছে। এখনও ২৬ দিন বাকি থাকলেও ইতোমধ্যেই রাজধানীসহ সারা দেশে বিশ্বকাপের হাওয়া বইতে শুরু করেছে। বাংলাদেশ থেকে রাশিয়ার দূরত্ব যোজন-যোজন মাইল দূর হলেও বাংলাদেশে ফুটবল বিশ্বকাপ নিয়ে উন্মাদনার বিন্দুমাত্র কমতি নেই।

দিন যতই ঘনিয়ে আসছে বিভিন্ন দলের সমর্থকরা পছন্দের দলের জার্সি কিনে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। বাসাবাড়ির ছাদে পতপত করে উড়ছে বিভিন্ন দেশের পতাকা। বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় আগে থেকেই জায়ান্ট স্ত্রিনে খেলা দেখার প্রস্তুতি নিচ্ছেন সমর্থকার।

সরেজমিন বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বিশ্বকাপের বিভিন্ন দলের পতাকা হাতে নিয়ে বিক্রেতারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন। ছোট-বড় বিভিন্ন আকারের পতাকা সর্বোচ্চ ৫শ’ টাকা থেকে সর্বনিম্ন ১০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।

শনিবার বিকেলে নিউমার্কেটের সামনে কালাম মিয়া নামের একজন পতাকা ব্যবসায়ী জানান, সারা বছর তিনি জাতীয় পতাকা বিক্রি করেন। বিশ্বকাপ উপলক্ষে গত কয়েকদিন যাবত বিশ্বকাপের বিভিন্ন দেশের পতাকা বিক্রি শুরু করেছেন। প্রতিদিন ছোট-বড় মিলিয়ে এক থেকে দেড় ডজন পতাকা বিক্রি হচ্ছে। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার পতাকা সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে।

তিনি জানান, ১০ ফুট ৫০০ টাকা, পাঁচ ফুট ১৮০ টাকা থেকে ২০০ টাকা, সাড়ে তিন ফুট ১৩০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা, আড়াই ফুট ৪০ থেকে ৫০ টাকা, দেড় ফুট ২০ টাকা থেকে ৩০ টাকা ও এক ফুট পতাকা ১০ টাকা দামে বিক্রি করা হচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.