চুয়াডাঙ্গা সিন্দুরিয়া পুলিশ ক্যাম্পের আইসিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক মিথ্যা স্বীকারোক্তি আদায়ের চেষ্টার অভিযোগ

0 22

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সিন্দুরিয়া পুলিশ ক্যাম্পের আইসির বিরুদ্ধে হাসানহাটি গ্রামের সংখ্যালঘু শ্রী সাধন কুমার বিশ্বাসের নিকট থেকে জোরপূর্বক মিথ্যা স্বীকারোক্তি আদায়ের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার বেলা ২টার দিকে নয়মাইল বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সদর থানায় ক্যাম্পের আইসি এএসআই বিল্লালসহ তিনজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছে শ্রী সাধন কুমার বিশ্বাস।
শ্রী সাধন কুমার বিশ্বাস অভিযোগ করে বলেন, গতকাল শনিবার বেলা ২টার দিকে তার নিজ কর্মকারের দোকানে কাজ করছিলেন। এ সময় দোকানে হাসানহাটি গ্রামের রোমজান আলীর ছেলে শাহীন ও একই গ্রামের মৃত আজগর আলীর ছেলে সুমন এসে দোকানের পেছনে নিয়ে যায়। শ্রী সাধন কুমার বিশ্বাস সেখানে যাওয়া মাত্রই পূর্ব থেকে বাঁশের লাঠি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা সিন্দুরিয়া পুলিশ ক্যাম্পের আইসি এএসআই বেলাল এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করেন। আর বলেন ‘তুই বল তোর কাছ থেকে আজিম দা বানিয়ে নিয়ে গেছে’, সাধন বলেন আমি মিথ্যা বলবো না। তখন এএসআই বেলাল মারা জন্য শাহীন ও সুমন হাতে লাঠি তুলে দেন। এ সময় তারা তাকে কিল-ঘুষি, দলে চটকে, লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। এ সময় বলে তোর মতো ১০ জনকে ক্রসফায়ারে দিলেও কিছু হবে না। তুই আজিমের বিরুদ্ধে স্বীকারোক্তি দে তোকে এখনই ছেড়ে দিচ্ছি। একপর্যায়ে সাধনকে ছেড়ে দিয়ে আসে আর বলে বেলা ৫টার মধ্যে স্বীকারোক্তি দিবি। পরবর্তীতে তার চিৎকরে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসে। তিনি আরও বলেন, সংখ্যালঘু হিন্দু পরিবারের সদস্য। এই দুর্বলতার কারণেই তারা তার ওপর অত্যাচার চালিয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.