মেহেরপুরে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু : তাহের ক্লিনিক ভাঙচুর

0 8

মেহেরপুর: মেহেরপুরে ভুল চিকিৎসার কারণে অপারেশন টেবিলেই আব্দুল খালেক (৪৮) নামের এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বিকেলে শহরের তাহের ক্লিনিকের মালিক ডা. আবু তাহের অপারেশন করার সময় এ ঘটনা ঘটে। এদিকে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু হয়েছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে রোগীর স্বজনরা এবং ক্ষুব্ধ জনতা ক্লিনিক ভাঙচুর করেন। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। নিহত আব্দুল খালেক মেহেরপুর সদর উপজেলার গোভিপুর গ্রামের মৃত হারান হালসানার ছেলে।
নিহত আব্দুল খালেকের মেয়ে পারিভন খাতুন এবং ভাইয়ের ছেলে জাহিদ হোসেন জানান, আব্দুল খালেক দুপুরে দা দিয়ে বাঁশ কাটছিলেন। এসময় অসাবধানবশত দায়ের কোপে বাম পা কেটে যায়। পরিবারের লোকজন তাকে প্রথমে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগে নেয়ার আগেই এক দালাল রোগীর লোকজনকে ফুঁসলিয়ে রোগীকে তাহের ক্লিনিকে নিয়ে যায়। বিকেলে অপারেশন করান ক্লিনিক মালিক ডা. আবু তাহের। কিন্তু অজ্ঞানের সময় কোনো এনেএসথেটিস্ট চিকিৎসক না নিয়ে তিনি নিজেই রোগীকে অজ্ঞান করান। অপারেশন শেষে রোগীর আর জ্ঞান ফেরেনি। পরে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।
অজ্ঞান করার প্রক্রিয়ায় ভুলের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ রোগীর স্বজনদের। তবে সব অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে তাহের ক্লিনিকের মালিক ডা. আবু তাহেরের স্ত্রী ডা. মেলিনা সুলতানা লিনা বলেন, যথাযথ নিয়ম মেনেই অপারেশন করা হয়েছে। রোগীর অজ্ঞানের বিষয়ে তিনি বলেন, জরুরি মুহূর্তে অজ্ঞানের ডাক্তার বাইরে থেকে নেয়ার মতো কোনো সুযোগ থাকে না।
ডা. আবু তাহের বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) মেহেরপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে এনেসথেসিস্ট হিসেবে তার কোনো প্রশিক্ষণ বা সনদ নাই। তবুও তিনি নিজেই সার্জারি ও এনেসথেসিস্ট হিসেবে কাজ করেছেন। মর্মান্তিক ওই মৃত্যুর ঘটনার বিষয়ে মেহেরপুর সিভিল সার্জন ডা. জিকেএম শামসুজ্জামান বলেন, তাহের ক্লিনিকে রোগীর মৃত্যুর খবর শুনেছি। তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষ হলেই আইননানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.