রাজনীতির মাঠে তারকারা

0 71

ডেস্ক:সামনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। রাজনীতি অঙ্গনের সেই বাতাস লেগেছে শোবিজেও। ঢাকাই সিনেমার অনেক জনপ্রিয় শিল্পী এখন দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন মনোয়ন পেতে। নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে শোবিজ থেকে প্রার্থীদের তালিকাও তত বড় হচ্ছে।

এদিকে, চলচ্চিত্রাঙ্গনের সকলের প্রিয় মুখ মিয়াভাইখ্যাত নায়ক ফারুক। এবারের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোয়ন দৌড়ে এগিয়ে আছেন তিনি। অনেক আগেই নায়ক ঘোষণা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের হয়ে নির্বাচন করতে চান। তাছাড়া চলচ্চিত্রে আসার আগ থেকেই রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন মিয়াভাই।

চলতি বছর জুলাই মাসে এক অনুষ্ঠানে ফারুক বলেছিলেন, আমি গাজীপুর-৫ আসন কালীগঞ্জ থেকে নির্বাচন করতে চাই। জীবনে অনেক কিছু পেয়েছি। এখন মানুষের হয়ে কাজ করতে চাই। আওয়ামী লীগের হয়ে মানুষের সেবা করতে চাই।

তাছাড়া গতকাল ডেইলি বাংলাদেশকে তিনি বলেন, আপা (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) আমাকে এখনো ডাকেননি। আমার সঙ্গে তার চূড়ান্ত কথাও হয়নি। আমাকে ডাকলে আমি অবশ্যই যাবো, কথা শুনবো। উনাকে জনগণের আকাঙ্খার কথা জানাবো। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। তার কাছ থেকেও অনেক ভালোবাসা পেয়েছি, আদর পেয়েছি। কালীগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর অনেক স্মৃতি, মুক্তিযুদ্ধের অনেক স্মৃতি। তাই আমি কালীগঞ্জ থেকেই নির্বাচন করতে চাই।

এদিকে, বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম ও গুঞ্জন উঠেছে, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নাম লেখাতে যাচ্ছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে দেখা যাবে তাকে। কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর সঙ্গী হয়ে আমেরিকাও গিয়েছিলেন ফেরদৌস। তখন থেকে গুঞ্জন আরো বাড়তে থাকে। তারপর থেকেই মূলত চিত্রাঙ্গনে ছড়িয়ে পড়েছে তার প্রার্থী হওয়ার খবর। শোনা যাচ্ছে, যশোর-৩ আসনে নির্বাচন করার ইচ্ছে তার। আমেরিকা থেকে দেশে ফিরে ২ অক্টোবর একটি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ফেরদৌস বলেন, প্রধানমন্ত্রী চাইলে অবশ্যই নির্বাচন করবো। তার সম্মতির ওপর নির্ভর করছে সবকিছু। তাছাড়া ব্যক্তিগতভাবে আমি নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত আছি।

এদিকে, জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে এরই মধ্যে গণসংযোগ শুরু করেছেন চিত্রনায়ক শাকিল খান। আওয়ামী লীগের হয়ে বাগেরহাট-৩ আসনের টিকেট পেতে চান তিনি। মনোয়ন পাওয়ার ব্যাপারে ভীষণ আশাবাদী এই নায়ক। বললেন, নেত্রী (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) গ্রিন সিগন্যাল দিয়েছেন তাই এলাকায় নেমে পড়েছি। জনগণের কাছে যাচ্ছি, দোয়া চাচ্ছি, ভালো সমর্থনও পাচ্ছি।

তাছাড়া ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমান। মিডিয়ায় সিদ্দিক নামেই বেশ পরিচিতি তার। চলতি বছর শুরু দিকে এক অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে দেখা গেছে তাকে। তিনি টাঙ্গাইল-১ আসন থেকে নির্বাচন করতে চান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০০৮ সাল থেকে এ এলাকায় গণসংযোগ করছেন সিদ্দিক। পাশাপাশি নিজেকে যুক্ত করেছেন বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে। দলীয় মনোনয়ন পেলে নির্বাচন করতে প্রস্তুত রয়েছেন ছোটপর্দার এই কমেডি অভিনেতা।

এদিকে, জনপ্রিয় অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নাম লিখেছেন অনেক আগেই। বছর দুই আগে এই দলের হয়ে ময়মনসিংহ-৩ আসনের উপ নির্বাচনের অংশ নেয়ার কথা ছিল নায়িকার। শেষ পর্যন্ত সেটি আর হয়ে ওঠেনি।

এবার শোনা যাচ্ছে আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থী হবেন জ্যোতি। তিনি ডেইলি বাংলাদেশকে জানালেন সে ইচ্ছের কথাও। তবে রাজনীতির ক্ষেত্রে নিজের অভিজ্ঞতা এখনো পুরোপুরি হয়নি বলেও মনে করেন নায়িকা।

তাছাড়া অনেক আগ থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী। ক্ষমতাসীন দলের কয়েকটি অঙ্গ-সংগঠনের বিশেষ দায়িত্বও পালন করছেন তিনি। আগামী নির্বাচনে ফেনী-৩ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন এই তারকা।

এ প্রসঙ্গে রোকেয়া প্রাচী বলেন, দেশ ও দশের সেবা করতে আমি প্রস্তুত। নেত্রীর সঙ্গে আছি। কোনো কারণে যদি আমাকে মনোনয়ন না দেয়া হয় তবে নেত্রী যাকে মনোনয়ন দেবেন তার পক্ষে কাজ করে নৌকাকে জয়যুক্ত করবো।

প্রসঙ্গত, শুধু এই তারকারাই নন বরং আরো অনেকেই এবারের নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার ইচ্ছাও পোষণ করেছেন। তারা হলেন, চিত্রনায়ক সোহেল রানা, জনপ্রিয় ও প্রবীণ অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান, জনপ্রিয় গীতিকার, সুরকার ও চলচ্চিত্রকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার, জনপ্রিয় অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর (বর্তমান এমপি), অভিনেত্রী তারানা হালিম (সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি), চিত্রনায়িকা কবরী, ফোক সম্রাজ্ঞীখ্যাত জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মমতাজ, নাট্যাভিনেত্রী শমী কায়সার, চিত্রনায়িকা অরুণা বিশ্বাস, ব্ল্যাক ডায়মন্ডখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী বেবী নাজনীন, জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপা, সঙ্গীতশিল্পী মনির খান, চিত্রনায়ক মাসুম পারভেজ রুবেল, জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী খালিদ, এসডি রুবেল, চিত্রনায়িকা শাবানা, চিত্রনায়ক হেলাল খান, কণ্ঠশিল্পী রিজিয়া পারভীন।

আরো শোনা যাচ্ছে, আসিফ আকবর, ন্যান্সি ও ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদের কথা। কিন্তু তারা নিজের মুখ থেকে এই বিষয়ে কিছু বলতে চাইছেন না।

Leave A Reply

Your email address will not be published.