চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে দুদকের অভিযান

0 66

চুৃয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন দুদকের একটি অনুসন্ধানী দল। বুধবার দুপুরে চার সদস্যর ওই দলটি অভিযান চালায়। এ সময় তারা জেলা কারাগরের বিভিন্ন টেন্ডারের ফাইলের নথিপত্র অনুসন্ধান করেন

জেলা কারাগারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে চলতি মাসের ৮ তারিখে জেলা কারাগারের ডাল সরবরাহের টেন্ডার প্রক্রিয়ায় অনিয়মের অভিযোগের ভিত্তিতে দুদক অনুসন্ধান চালিয়েছে।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন জেলা কারাগারের জেলার এমরান হোসেন।

দুদকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দুদকের হটলাইন ১০৬ নাম্বারে ফোন করে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে ডাল ক্রয় সংক্লান্ত একটি অভিযোগ জানানো হয়। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের অবহিত করে বুধবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে অভিযান চালানো হয়।
এ সময় দুদকের সদস্যরা ডাল ক্রয় সংক্লান্ত টেন্ডারের সকল কাগজপত্র পরীক্ষা-নিরাক্ষা করেন। এর মধ্যে কিছু নথিপত্র জব্দও করেন।

দুদকের কুষ্টিয়া অঞ্চলের সহকারী উপ-পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান জানান, চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারের বন্দীদের জন্য ডাল সরবরাহের টেন্ডারে অনিয়মের অভিযোগের ভিত্তিতে এ অনুসন্ধান চালানো হয়।

অনুসন্ধানে অনিয়মের বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য মিলেছে। বেশ কিছু নথিপত্র আমরা সংগ্রহ করেছি। এগুলো আরো যাচাই বাচাই শেষে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো বলে তিনি আরও জানান।

জেলা কারাগার সূত্র জানায়, চলতি বছর জেলা কারাগারের বন্দিদের ডাল সরবহারের জন্য পত্রিকায় দরপত্র আহ্বান করা হয়। এই টেন্ডারে চার জন ঠিকাদার অংশগ্রহণ করেন। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সর্বনিম্ন দরদাতা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান শিহাব ডাল মিলের সত্ত্বাধিকারী

সাইফুল ইসলাম মিনুকে সরকারী নিয়মানুযায়ী ঠিকাদার নিযুক্ত করা হয়।

গত ৮ অক্টোবর টেন্ডার সংক্লান্ত সকল কার্য সম্পন্ন করা হয়। সরকারী সকল বিধি মেনে ডাল ক্রয় সংক্লান্ত টেন্ডার সম্পন্ন করা হয়েছে বলে দাবি জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক নজরুল ইসলামের।

Leave A Reply

Your email address will not be published.