মানি লন্ডারিং ঠেকাতে সচেতনতা বাড়ানোর তাগিদ

0 19

ডেস্ক:ব্যাংকিংয়ে সম্ভাব্য মানি লন্ডারিং ঠেকাতে সচেতনতা বাড়াতে হবে। একই সঙ্গে ব্যাংকার, বাংলাদেশ ব্যাংক এবং মোবাইল অপারেটরদেরও কাজ করতে হবে। সারাবিশ্বে এ ধরনের তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবস্থায় যে ঝুঁকি তৈরি হয়েছে তা থেকে শিক্ষা নিয়ে জরুরি ব্যবস্থা নিতে হবে।

বুধবার রাজধানীর মিরপুরে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) অডিটোরিয়ামে ‘মানিলন্ডারিং ভালনারেবিলিটিস ইন নিউ পেমেন্ট সিস্টেমস: বাংলাদেশ কনটেক্সট’ শীর্ষক কর্মশালায় এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

কর্মশালায় বিআইবিএমের চেয়ার প্রফেসর এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. বরকত-এ-খোদা বলেন, মানি লন্ডারিং প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি ও জনশক্তি নেই। এদিকে নজর দিয়ে ব্যাংকারদের দক্ষতা বাড়াতে হবে।

পূবালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক হেলাল আহমদ চৌধুরী বলেন, পুরো ব্যাংকিং ব্যবস্থা তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে যাচ্ছে। এ কারণে শুধু আইটি অফিসারদের নয় পুরো ব্যাংকিং খাতের কর্মীদের আইটি বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা থাকতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক আইটিতে অনেক এগিয়ে বলে অন্য ব্যাংক তাদের সঙ্গে তাল মেলাতে হিমশিম খাচ্ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মহা-ব্যবস্থাপক লিলা রশীদ বলেন, মোট লেনদেনের ৬ শতাংশ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে। সাম্প্রতিক এ ধরনের ব্যাংকিংয়ের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আরো নিয়ম-শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে কিছুটা সময় লাগবে।

গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন বিআইবিএমের অধ্যাপক এবং পরিচালক (ট্রেনিং) ড. শাহ মো. আহসান হাবীবের নেতৃত্বে ৮ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।

কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন বিআইবিএমের মহাপরিচালক ড. তৌফিক আহমদ চৌধূরী। স্বাগত বক্তব্য দেন বিআইবিএমের মহা-পরিচালক ড. তৌফিক আহমদ চৌধূরী।

Leave A Reply

Your email address will not be published.