তফসিল না পেছানোর দাবি জাতীয় জোটের

0 13

 

ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ না পেছানোর দাবি জানিয়েছে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোট। একইসঙ্গে সংসদ নির্বাচন সংবিধান মোতাবেক করার দাবিও জানিয়েছে তারা।

বুধবার দুপুরে সম্মিলিত জাতীয় জোট একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে দেখা করে জানিয়েছে, তফসিল পেছানোর পক্ষে কোনো যুক্তি থাকতে পারে না।

আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে বুধবার সকাল সোয়া ১১টায় এ বৈঠক শুরু হয়। বৈঠক নেতৃত্ব দেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

বৈঠক শেষে জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার সাংবাদিকদের বলেন, আমরা ইসির কাছে আটটি দাবি তুলে ধরেছি। আমাদের সবগুলো দাবির সঙ্গে ইসি একমত হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা ইসিকে জানিয়েছি, তফসিল ৮ নভেম্বরই ঘোষণা করা হোক। যেহেতু আজ সবগুলো দলের সঙ্গে সংলাপ শেষে হচ্ছে, তাই তারিখ পেছানোর পক্ষে কোনো যুক্তি থাকতে পারে না। নির্বাচনে কালো টাকা প্রভাবমুক্ত করার ব্যবস্থা ও অস্ত্রের ব্যবহার বন্ধে কঠোর হওয়ার দাবি জানিয়েছি। নির্বাচন যেন সংবিধান মোতাবেক হয় সেই দাবি জানিয়েছি। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের ক্ষেত্রে মানুষ এখনো অভ্যস্ত নয়, ফলে এটি ব্যবহারে আরো সময় নেয়ার দাবি জানিয়েছি। ইসি আমাদের সবগুলো দাবির সঙ্গে একমত।

এরশাদ ও রুহুল আমিন হাওলাদার ছাড়াও জাতীয় পার্টির কো চেয়ারম্যান জিএম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এমএ সাত্তার, জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু, প্রফেসর দেলোয়ার হোসেন খান, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সাহেদুর রহমান টেপা, মুজিবুল হক চুন্নু, সুনীল শুভ রায়, এসএম ফয়সল চিশতী, আব্দুস সবুর আসুদ, মশিউর রহমান রাঙ্গা, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক এমএ মোমেন, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিশের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক, জাতয়ী ইসলামী মহাজোটের চেয়ারম্যান আবু নাসের ওয়াহেদ ফারুক, চেয়ারম্যান বিএনএ সেকেন্দার আলী মনি বৈঠকে অংশ নিয়েছেন। নির্বাচন কমিশনের পক্ষে রয়েছেন সিইসি কে এম নূরুল হুদাসহ অন্য চার কমিশনার ও ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

বিকেল ৪টায় আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দলের ইসির সঙ্গে সংলাপের কথা রয়েছে।

এরআগে মঙ্গলবার সাবেক রাষ্ট্রপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন রাজনৈতিক জোট যুক্তফ্রন্টের একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে দেখা করেছে। যুক্তফ্রন্টের নেতা আবদুল মান্নানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল দেখা করে ইসিকে ৫ দফা সংবলিত একটি চিঠি দেয়। ওই চিঠিতে নির্বাচন না পেছানোর পরামর্শ দিয়ে বলা হয়, নির্বাচন তফসিল অকারণে বিলম্ব হলে জাতির মধ্যে সংশয়, বিভ্রান্তি ও হতাশার সৃষ্টি হবে, যা কোনোক্রমেই কাম্য নয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.