জীবননগর লক্ষীপুরে ভুট্ট্রা ক্ষেত তছুরুপে সালিস শেষে প্রতিপক্ষের হামলায় সাংবাদিকসহ ৬

0 22

 

জীবননগর: জীবননগর পৌর শহরের লক্ষীপুর মিলপাড়ায় ক্ষেতের ভুট্ট্রা গাছ তছরুপ পরবর্তী সৃষ্ট ঘটনায় অনুষ্ঠিত সালিস বৈঠক শেষে প্রতিপক্ষের সাংবাদিক রমজানসহ ৬ জন মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছেন। ঘটনাটি বৃহস্পতিবার রাতে লক্ষীপুর মিলপাড়ায় সংঘটিত হয়েছে। আহতদেরকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্য্র ও যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্র্র্র্র্র্র্র্র্শী সুত্র জানান,জীবননগর পৌর শহরের লক্ষীপুর মিলপাড়া আনসার আলীর জমির ভুট্ট্রা ক্ষেতে গত পাঁচ দিন অগে প্রবেশ করে শিশির নামে এক যুবক মোবাইল ফোনে সেলফি ওঠানোর সময় কিছু ভুট্ট্রা গাছ ভেঙ্গে ক্ষতি হয়। এ ঘটনায় বৃদ্ধ আনসার আলী(৭৫) প্রতিবাদ করায় শিশিরসহ তার সহযোগীরা তার ওপর মারমুখী আচরণ করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আনসার আলীর দু’ছেলে শরিফুল ও রিয়াজুলদের সাথে বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে শিশিরকে মারপিট করে আহত করে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় লক্ষীপুর মিলপাড়ায় সাংবাদিক লিটনের রাইস মিলে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর খন্দকার আলী আজমের নেতৃত্বে সালিস বৈঠক বসে। ঘটনার সময় শিশিরের একটি মোবাইল ফোন হারিয়ে যাওয়ায় সালিস বৈঠকে আনসার আলীকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা ও উভয়পক্ষের মধ্যে বুকে বুক মিলিয়ে ঘটনা নিস্পত্তির এক পর্যায়ে শিশির পক্ষের সাগর ও সাইফুলের নেতৃত্বে ৩০-৩৫ জন যুবক সালিস বৈঠকের সিদ্ধান্ত অমান্য করে হাতে লাঠিসোটা,হাসুয়া ইত্যাদিন নিয়ে আনসার আলী ও তার তিন ছেলে শরিফুল(৩৮),সাংবাদিক রমজান(৩২) ও রিয়াজুল(২৮),জব্বার হালদারের ছেলে আলমগীর(৪০)। এ সময় ঘটনা ঠেকাতে গিয়ে হামলার শিকার হন সংশি¬ষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর খনন্দকার আলী আজমও। ঘটনার সময় হামলার শিকার ব্যাক্তিদের মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা পয়সা খোয়া গিয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এ সময় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ গনি মিয়া ও সাব-ইন্সপেক্টর সিরাজুল আলমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্য্রের ডা.জাহাঙ্গীর আলম বলেন,আহতদের আমাদের হাসপাতালেই চিকিৎসা দেয়া সম্ভব। কোথাও রেফার করার প্রয়োজন নেই। আহতরা সবাই মোটামুটি ভাল আছেন।
এ ব্যাপারে জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ গনি মিয়া বলেন,ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। হাসপাতালে গিয়েছিলাম আহতদের চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজখবর নিয়েছি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.