ক্রীড়াঙ্গনে একাদশের এমপিরা

0 80

 

ডেস্ক: সদ্য শেষ হলো একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। ক্রীড়াঙ্গনের এক ঝাঁক তারকা নৌকার হাল ধরে ভোটযুদ্ধে জয়ী হয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। ক্রীড়াঙ্গনের তারকারা নির্বাচনের মাঠেও তাদের খেলা দেখিয়েছেন। নির্বাচনে ক্রীড়াঙ্গনের সব থেকে বড় চমক বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার এমপি নির্বাচিত হওয়া।

ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো ক্রীড়াঙ্গনের তারকাদের নির্বাচিত হওয়া নিয়ে বিশেষ আয়োজন-

ক্রীড়াঙ্গন থেকে এই নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয়ী হয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন ১৭ জন সাবেক ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠক। কেউ কেউ প্রথমবার, আবার অনেকেই তৃতীয় ও পঞ্চমবারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন।’

মাশরাফি বিন মুর্তজা: বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক ও দেশের ক্রিকেট কিংবদন্তি মাশরাফি বিন মুর্তজা নির্বাচনের মাঠেও নিজের সেরা পারফর্মেন্স দেখিয়েছেন। জিতেছেন বিশাল ব্যবধানে। বেসরকারি ফল বলছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (নড়াইল-২) আসন থেকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মাশরাফি বিন মুর্তজা প্রায় আড়াই লাখের বেশি ভোটে জয়যুক্ত হয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে মাশরাফি পেয়েছেন ২ লাখ ৭১ হাজার ২১০ ভোট। তার প্রতিন্দ্বন্দ্বী ঐক্যফ্রন্টের মনোনীত প্রার্থী এনপিপির একাংশের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ফরিদুজ্জামান ফরহাদ (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৭ হাজার ৮৮৩ ভোট।

নাজমুল হাসান পাপন:

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি ও আবাহনীর পরিচালক নাজমুল হাসান পাপন এবারো বড় ব্যবধানের জয় নিয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। কিশোরগঞ্জ-৬ আসন থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ২ লাখ ৪ হাজার ,৯৩৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী শরিফুল আলম পেয়েছেন ২৭ হাজার ৮৯০ ভোট।

আবদুস সালাম মুর্শেদী:

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক ফুটবলার ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবদুস সালাম মুর্শেদী খুলনা-৪ আসন থেকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত হয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। জাতীয় নির্বাচনে এটাই তার প্রথম অংশগ্রহণ। নৌকা প্রতীক নিয়ে ২ লাখ ২৩ হাজার ২১৪ পেয়েছেন তিনি। সাবেক এই ফুটবলারের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) মনোনীত প্রার্থী আজিজুল বারী হেলাল পেয়েছেন মাত্র ১৪হাজার ১৮৭ ভোট। ফলে ২০৯০২৭ ভোটের ব্যবধানে জিতেছেন সালাম মুশের্দী।

ড. বীরেন শিকদার:

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার মাগুরা-২ আসন থেকে বিপুল ভোটে এমপি নির্বাচিত হয়েছে। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ২ লাখ ২৯ হাজার ৬৫৯ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী নিতাই রায় চৌধুরী পেয়েছেন ৫২ হাজার ৬৬৮ ভোট।

আ হ ম মোস্তফা কামাল:

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক সভাপতি আ হ ম মোস্তফা কামাল ক্রীড়াঙ্গনের মধ্যে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয় পেয়েছেন। কুমিল্লা-১০ আসন থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৪ লাখ ৫ হাজার ২৯৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী মনিরুল হক চৌধুরী পেয়েছেন ১২ হাজার ৪৮৮ ভোট।

সাবের হোসেন চৌধুরী:

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী ঢাকা-৯ আসন থেকে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ২ লাখ ২৪ হাজার ২৩০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী আফরোজা আব্বাস পেয়েছেন ৫৯ হাজার ১৬৫ ভোট।

ওবায়দুল কাদের:

এক সময়ের ফুটবলার ও সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নোয়াখালী-৫ আসন থেকে বিশাল ব্যবধানে জয় নিয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি ভোট পেয়েছেন ২ লাখ ৫২ হাজার ৭৪৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মওদুদ আহমদ পেয়েছেন ১০ হাজার ৯৭০ ভোট।

শাহরিয়ার আলম:

আবাহনী লিমিটেডের পরিচালক, বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সাবেক সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের সভাপতি শাহরিয়ার আলম বিপুল ভোটে জয়যুক্ত হয়েছে। রাজশাহী-৬ আসন থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ২ লাখ ২ হাজার ১০৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আব্দুস সালাম সুরুজ হাতপাখায় পেয়েছেন ৭ হাজার ৮৭১ ভোট।

গোলাম দস্তগীর গাজী:

নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক পরিচালক গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক) জয়লাভ করেছেন। প্রায় ২ লাখ ২৭ হাজার ভোটের বিশাল ভোটের ব্যবধানে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মনীরুজ্জামানকে পরাজিত করেন। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো এমপি নির্বাচিত হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম দস্তগীর গাজী। নির্বাচনে গোলাম দস্তগীর গাজী পেয়েছেন ২ লাখ ৪৩ হাজার ৭৩৯ ভোট। অন্যদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী মনিরুজ্জামান (মনির) পেয়েছেন মাত্র ১৬ হাজার ৪৩৪ ভোট।

মাহবুব আরা বেগম গিনি:

সাবেক অ্যাথলেট ও বাংলাদেশ মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সভানেত্রী মাহবুব আরা বেগম গিনি গাইবান্দা-২ আসন থেকে পূর্ণ প্রতিযোগিতামূলক ভোটে জয়যুক্ত হয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ১ লাখ ৮৯ হাজার ৬১৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী আব্দুর রশিদ শিকদার পেয়েছেন ৬৮ হাজার ৬৭০ ভোট।

নাঈমুর রহমান দুর্জয়:

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বিসিবির পরিচালক নাঈমুর রহমান দুর্জয় (মানিকগঞ্জ-১)। টানা দ্বিতীয়বারের মতো দেশের জাতীয় নির্বাচনে জয়ী বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয়। মানিকগঞ্জ-১ আসন থেকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ থেকে মনোনিত এই প্রার্থী। এই ১৬৮ (ঘিওর-দৌলতপুর-শিবালয়) আসন থেকে গত নির্বাচনেও (২০১৪) এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন বাংলাদেশ টেস্ট দলের প্রথম অধিনায়ক। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ২,৫৩,১৫১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী এস এ জিন্নাহ কবির পেয়েছেন ৫৮,১৮২ ভোট।

জাহিদ আহসান রাসেল:

জাতীয় সংসদের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান জাহিদ আহসান রাসেল গাজীপুর-২ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৪ লাখ ১২ হাজার ১৪০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী সালাহ উদ্দীন সরকার পেয়েছেন ১ লাখ ১ হাজার ৪০ ভোট।

কাজী নাবিল আহমেদ:

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহ-সভাপতি ও আবাহনীর ভারপ্রাপ্ত ডাইরেক্টর ইনচার্জ কাজী নাবিল আহমেদ যশোর-৩ আসন থেকে পুনরায় এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৩ লাখ ৬১ লাখ ৩৩৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী অনিন্দ্য ইসলাম অমিত পেয়েছেন ৩১ হাজার ৭১০ ভোট।

সালমান এফ রহমান:

আবাহনী লিমিটেডের চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান ঢাকা-১ আসন থেকে বিপুল ভোটে জয় নিয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৩ লাখ ২ হাজার ৯৯৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটর গাড়ি প্রতীক নিয়ে সালমা ইসলাম পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭৬৩ ভোট।

কর্নেল (অব.) ফারুক খান:

বাংলাদেশ স্কোয়াশ র‌্যাকেটস ফেডারেশনের সভাপতি কর্নেল (অব.) ফারুক খান গোপালগঞ্জ-১ এবারো এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। এ নিয়ে পাঁচবারের এমপি নির্বাচিত হয়েছেন এই ক্রীড়া সংগঠক। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৩ লাখ ৩ হাজার ১৬২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাতপাখা প্রতীক নেয়া মোহাম্মদ মিজানুর রহমান পেয়েছেন ৭০২ ভোট।

বীর বাহাদুর:

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাবেক সহ-সভাপতি বীর বাহাদুর বান্দরবান আসন থেকে জয় পেয়েছেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ১ লাখ ৪৩ হাজার ৯৯০ ভোট।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী সাচিং প্রু পেয়েছেন ৫৮ হাজার ২১৭ ভোট।

ড. আবদুস সোবহান গোলাপ:

বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক ও উশু ফেডারেশনের সভাপতি ড. আবদুস সোবহান গোলাপ মাদারীপুর-৩ আসন থেকে বিপুল ভোটে জয় নিয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। বিএনপি প্রার্থী আনিসুর রহমান তালুকদারকে হারিয়ে এমপি হলেন তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.