নির্বাচনী প্রচারণায় তুঙ্গে বিএফডিসি

0 61

 

ডেস্ক: দিন কয়েক পরেই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালিক সমিতির নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে ঘিরে বিএফডিসিতে এখন বিরাজ করছে টানটান উত্তেজনা। প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে গিয়ে নানান প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। এদিকে বিএফডিসিতে প্রত্যেক প্রার্থীই তার নিজ নিজ পোস্টার টানিয়ে তার অবস্থানের কথা জানান দিচ্ছেন। বলতে গেলে রঙ বেরঙের পোস্টারে ঢেকে গেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন (বিএফডিসি) প্রাঙ্গণ।

পরিচালক সমিতির সামনে থেকে এফডিসির মূল ফটক, ক্যান্টিন সব জায়গাতেই প্রার্থীদের নানা রঙের পোস্টারে ছেয়ে গেছে। অনেকেই আবার প্রচারণার অংশ হিসেবে চা, পিঠার দোকান বসিয়ে ফ্রি করে দিয়েছেন খাওয়ার জন্য। প্রায়ই প্রতিদিনই এফডিসির ক্যান্টিন ও পরিচালক সমিতির সামনে চলছে নির্বাচনী আড্ডা। প্রতিদিনই সাধারণ ভোটারদের সরব উপস্থিত লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন দুটি প্যানেল। প্যানেল দুটি হচ্ছে মুশফিকুর রহমান গুলজার ও বদিউল আলম খোকন পরিষদ এবং বাদল খন্দকার ও বজলুর রাশেদ চৌধুরী পরিষদ। এবারের নির্বাচনে ১৯ পদের বিপরীতে ৬ জন স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ মোট ৪৪ জন পরিচালক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ তথ্য সম্প্রতি প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন।

সভাপতি পদে প্রার্থীতা করছেন মুশফিকুর রহমান গুলজার ও বাদল খন্দকার, সহ-সভাপতি পদে মনতাজুর রহমান আকবর ও শাহ্ আলম কিরণ, মহাসচিব বদিউল আলম খোকন, বজলুর রাশেদ চৌধুরী ও সাফি উদ্দিন সাফি, উপ-মহাসচিব পদে শাহীন সুমন, পল্লী মালেক ও রকিবুল আলম রকিব, কোষাধ্যক্ষ পদে মোঃ সালাহ্উদ্দিন ও সেলিম আজম, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কবিরুল ইসলাম রানা, মোস্তাফিজুর রহমার মহারাজ ও মোঃ জয়নাল আবেদীন, আন্তর্জাতিক ও তথ্য বিষয়ক সম্পাদক পদে মোস্তাফিজুর রহমান মানিক ও বিপ্লব শরীফ, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সচিব ওয়াজেদ আলী বাবুল ও শাহীন করির টুটুল, প্রচার, প্রকাশনা ও দফতর সম্পাদক পদে মোঃ আনোয়ার সিরাজি ও হানিফ আকন দুলাল।

এছাড়াও সাধারণ নির্বাহী সদস্যের ১০ পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ছটকু আহমেদ, সোহানুর রহমান সোহান, মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, শাহাদাৎ হোসেন লিটন, সাইদুর রহমান সাঈদ, শফিক হাসান, আবুল খায়ের বুলবুল, আবদুস সামাদ খোকন, আলী আজাদ, আহমেদ আলী মন্ডল, আহমেদ ইলিয়াস ভূইয়া, এম. এ আউয়াল, এ, কে ফোরকান, কমল সরকার, কাজী আলমগীর, কামরুজ্জামান(তাজু কামরুল), জি সরকার, দেওয়ান নাজমুল, নূর মোহাম্মদ মনি, মৃদুল আহমেদ দিশারী, মোঃ আবুল কালাম আজাদ, শিল্পী চক্রবর্তী ও শাহেদ চৌধুরী।

এ নির্বাচনে দুটি প্যানেলের আলাদা আলাদা নির্বাচনী স্লোগান রয়েছে। মুশফিকুর রহমান গুলজার ও বদিউল আলম খোকন পরিষদের স্লোগান হচ্ছে- ‘অগ্রগতির অঙ্গকার নিয়ে’ অন্যদিকে বাদল খন্দকার ও বজলুর রাশেদ চৌধুরী পরিষদের স্লোগান ‘আমাদের সম্প্রীতি’।

এদিকে শনিবার সমিতির সব পরিচালককে নিয়ে সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন আব্দুল লতিফ বাচ্চু। সদস্য হিসেবে থাকছেন আ.শ.ম শফিকুর রহমান ও বি এইচ নিশান। সর্বশেষ (২০১৭-২০১৮) নির্বাচনে গুলজার-খোকন নির্বাচিত হয়ে এখন অবধি দায়িত্ব পালন করছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.