ফালু দম্পতির সব সম্পত্তি জব্দ

0 179

 

ডেস্ক: জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের সাবেক উপদেষ্টা মোসাদ্দেক আলী ফালু ও তার স্ত্রী মাহবুবা সুলতানার স্থাবর-অস্থাবর সব সম্পত্তি জব্দ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রোববার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদেশে তাদের সম্পত্তি জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মোসাদ্দেক আলী ফালুর বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের ১৫ মে রমনা থানায় একটি মামলা করে দুদক। মামলা নম্বর ৩৭। মামলায় ফালুর বিরুদ্ধে ১৭ কোটি ৮৬ লাখ ৬৮ হাজার ৩৯৮ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়। এছাড়া একই বছরের ১০ আগস্ট রমনা থানায় স্ত্রী মাহবুবার বিরুদ্ধে একটি মামলা করে দুদক। ওই মামলায় স্ত্রী মাহবুবা সুলতানার বিরুদ্ধে ৩ কোটি ৯৩ লাখ ৮৮ হাজার ৪৭২ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়।

এদিকে গত ২২ জানুয়ারি প্রায় ২২ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও মিথ্যা তথ্য দেওয়ার দায়ে ফালু ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে চার্জশিটের অনুমোদন দেয় দুদক।

এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘আদালত আমাদের আবেদনে সাড়া দিয়েছে। আদালতকে বলা হয়েছে তাদের সকল সম্পত্তি অবৈধ। আমরা মামলা শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের সকল সম্পত্তি জব্দ করেছি। আমরা জব্দ করেছি তার মানে এই নয় যে, আমরা তাদের সম্পত্তি নিয়ে নিয়েছি। সম্পত্তি জব্দ করার মানে হচ্ছে মামলা চলাকালীন তাদের সম্পত্তি যেন অন্য কাউকে হস্তান্তর করতে না পারে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা সবসময় দুর্নীতির বিরুদ্ধে। কোনো ধরনের দুর্নীতি মেনে নেয়া হবে না। এখন থেকে দুর্নীতির অনুসন্ধান শুরু হলেই অভিযুক্তদের সম্পত্তি জব্দ করবে দুদক। এর কারণ হচ্ছে যারা দুর্নীতিবাজ তাদেরকে বোঝানো দুর্নীতি করে পার পাওয়া যাবে না।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.