দিনে আ. লীগ নেতা, রাতে মাছ চোর!

অন্যের মাছের ঘেরে মাছ চুরি করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক হয়েছে সাতক্ষীরা সদরের ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম (৫৫)। এসময় তার কাছ থেকে ছয়টি বাগদা চিংড়ি ভর্তি ব্যাগ, টর্চ লাইট, মোবাইল ও মাছ ধরার সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। 

রবিবার (১৬ মার্চ) রাত তিনটার দিকে ধুলিহর ইউনিয়নের জুসখোলা এলাকার সাইফুল ইসলামের মাছের ঘের থেকে মাছ চুরি করতে গিয়ে ঘের কর্মচারীর হাতে আটক হয় আবুল কালাম। আবুল কালাম সাতক্ষীরা সদর উপজেলার মাটিয়াডাঙ্গা গ্রামের মৃত নবাত আলী বিশ্বাসের ছেলে। 

ঘের মালিক সাইফুল ইসলাম জানান, প্রায় ১৫ দিন পূর্বে মাটিয়াডাঙ্গার হারুনার রশিদ টুকুর ৬ বিঘার মৎস্য ঘেরের খাট (তলা) আবুল কালাম ক্রয় করেন। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে কালামসহ তার সহযোগিরা আশপাশের ঘের থেকে মাছ চুরি করতে শুরু করে। 

আমার ঘের তিনি এ পর্যন্ত এক থেকে দেড় লাখ টাকার মাছ চুরি করেছে। আবুল কালাম দিনের বেলা আওয়ামী লীগ নেতা, রাত হলেই চলে যান পরের ঘেরের মাছ চুরি করতে।

ব্রহ্মরাজপুর পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই শিল্লুর রহমান বলেন, স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে আবুল কালামকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.