সাম্প্রদায়িক হামলায় গ্রেফতার ও বিচার দাবি

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল কেন্দ্রীয় নির্বাহী ফোরামের ভারপ্রাপ্ত সমন্বয়কারী কমরেড ফখরুদ্দিন কবির আতিক আজ এক বিবৃতিতে গতকাল খুলনার রূপসা উপজেলার শিয়ালদী গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির, দোকানপাট ও বাড়ি-ঘরে হামলা-লুটপাটের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানান এবং হামলায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও বিচার দাবি করেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, স্থানীয় মসজিদের ইমাম শ্মশানযাত্রী একদল নারীর কীর্তনে বাধা দিলে সেখানে উদ্ভূত বাদানুবাদের পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে গতকাল শতাধিক যুবককে সংগঠিত করে সশস্ত্র হামলা চালানো হয়। গ্রামের ৪টি মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুর, বাজারে হিন্দু সম্প্রদায়ের দোকান এবং বাড়ি-ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়। হামলায় বাধা দিতে গেলে উক্নিত গ্রামের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ হামলাকারীদের পক্ষে ভূমিকা নেয়, যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, ইতোপূর্বে গোটা দেশে নানা এলাকায় সংঘটিত সাম্প্রদায়িক হামলায় মৌলবাদী-সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী ও সরকার দলীয় কায়েমী স্বার্থান্ধ মহল এবং প্রশাসনের প্রত্যক্ষ মদদের চিত্র দেশবাসী প্রত্যক্ষ করেছে। সাম্প্রতিক হামলাও একই পরিস্থিতির পুনরাবৃত্তি বলে প্রতীয়মান হয়। এসব ঘটনার বিচার না হওয়ায় বারবার এধরনের ঘটনা সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের জানমালের নিরাপত্তা উদ্বেজনক অবস্থায় দাঁড়িয়েছে।

তিনি অবিলম্বে হামলাকারী দুবৃর্ত্তদের ও নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার ও বিচার দাবি করেন। তিনি একইসাথে দেশের সকল গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক সামাজিক শক্তিসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি এ ঘৃণ্য অপশক্তি মোকাবেলায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.