বাংলাদেশের কৃষি খাতে ৩ কোটি ৩০ লাখ মার্কিন ডলার দেবে চীন

বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়নে চীন সবসময় পাশে থাকবে বলেমন্তব্য করেছেন দেশটির রাষ্ট্রদূত ঝাং জুয়া। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের কৃষি খাতে  চীনের একটি কোম্পানি ৩ কোটি ৩০ লাখ মার্কিন ডলারের বিনিয়োগ করছে। তারা এদেশে ৩টি কৃষি-প্রক্রিয়াজাত শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপন করবে।’ মঙ্গলবার (১৬ মে) সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এসব কথা বলেন।

বৈঠক শেষে কৃষি মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. গিয়াসউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বৈঠকে  দুই দেশের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়েও কথা হয়েছে।’

বাংলাদেশ স্বাস্থ্য শিক্ষাসহ সামাজিক ও অর্থনৈতিক দিক দিয়ে যে সাফল্য অর্জন করেছে, তা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার বলে মন্তব্য করেন  চীনের রাষ্ট্রদূত। তিনি বলেন, ‘চীন বাংলাদেশ থেকে কৃষিজাত পণ্য আমদানি করবে। বাংলাদেশে চলমান রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান চায় বেইজিং। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী নিরাপদে যথাযথ সম্মান ও মর্যাদার সঙ্গে মিয়ানমারে ফেরত যাবে, এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বেইজিং বাংলাদেশের সঙ্গে আছে। এছাড়া সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও নাশকতা দমনে চীন বাংলাদেশ একসঙ্গে কাজ করবে।’

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘অধিক ফলনশীল ধানের জাত উদ্ভাবন করেছে বাংলাদেশ। যদিও এ বিষয়ে চীন অনেক এগিয়ে রয়েছে। কৃষির আধুনিকায়নের মাধ্যমে জনগণের মানসম্মত খাদ্য ও পুষ্টি নিশ্চিত করে ২০৪১ সালের আগেই উন্নত বাংলাদেশে পরিণত হতে সবখাতে কাজ করছে সরকার। কৃষি প্রক্রিয়াজাত ও মূল্যসংযোজনের মাধ্যমে কৃষিকে লাভজনক করতেও কাজ করছে সরকার।’

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘চলমান ধানের দাম নিয়ে সরকার বেশ গুরুত্বের সঙ্গে কাজ করছে।’ কৃষক তার কৃষিপণ্যের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.