৮ বছর পর জুমার নামাজে ইমামতি ও খুতবা দিচ্ছেন খোমেনি

ইউক্রেনের বিমানে হামলা চালিয়ে ভূপাতিত করার ঘটনায় প্রচণ্ড চাপের মুখে পড়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খোমেনি ও প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানিসহ দেশটির শীর্ষ নেতারা। এ নিয়ে ইরানে খোমেনি-রুহানি বিরোধী লাগাতার বিক্ষোভ চলছে। 

এরইমধ্যে ইরানের রাজধানী তেহরানে শুক্রবারের জুমান নামাজে ইমামতি করবেন খোমেনি। দীর্ঘ ৮ বছর পর জুমান নামাজে ইমামতি করতে যাচ্ছেন দেশটির সর্বোচ এ ধর্মীয় নেতা। 

এদিকে মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় চরম মন্দায় পড়েছে ইরানের অর্থনীতি। গেল বুধবার ইরানের জনগণকে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট রুহানি। 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, শুক্রবার তেহরানের মোসাল্লা মসজিদে জুমার নামাজের ইমামতি করবেন ৮০ বছর বয়সী আয়াতুল্লাহ খোমেনি। এর মধ্য দিয়ে ইরান আবারও তাদের ঔদার্য ও ঐক্য প্রদর্শন করছেন বলে ইঙ্গিত রয়েছে। 

সবশেষ ২০১২ সালে ইসলামী বিপ্লবের ৩৩তম বার্ষিকীতে জুমায় ইমামতি করেছিলেন খোমেনি। যখন কিনা পুরো মধ্যপ্রাচ্য উত্তাল ছিল আরব বসন্তের প্রভাবে। 

সাধারণত এ ধরনের উপলক্ষগুলোতে আরবি ভাষায় খুতবা দিয়ে আরব বিশ্বের বিভিন্ন ঘটনা ও ঐতিহ্যকে ইসলামের পুনর্জাগরণ হিসেবে উপস্থাপন করে গণজাগরণ ঘটাতে চান খোমেনি। জাতীয় ঐক্যকে আরও সুদৃঢ় করতে চান। 

এদিকে খোমেনির ইমামতিকে ভিন্ন কিছু ইঙ্গিত করে দ্য ওয়াশিংটন ইনস্টিটিউট ফর নেয়ার ইস্ট পলিসির মাহদি খালজি বলেছেন, ‘খোমেনির ইমামতির অন্য তাৎপর্য রয়েছে। সাধারণত ইরানের সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ কোনও গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় বার্তা দেয়ার আগে এ ধরনের আয়োজন করে থাকে।’

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.