ক্ষতি পুষিয়ে দিতে ভারতের প্রস্তাবে সাড়া দিল ইংল্যান্ড

ম্যানচেস্টার টেস্ট বাতিল হওয়ায় ইংল্যান্ডের ৪০ মিলিয়ন ডলার ক্ষতি হয়েছে। যা নিয়ে দীর্ঘশ্বাস চলছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডে।

তবে সে ক্ষতি পুষিয়ে দিতে চাইছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। তারা ইতোমধ্যে প্রস্তাবও দিয়েছে।

ভারতের দেওয়া প্রস্তাবে রাজি হয়েছে ইংলিশ বোর্ড। আগামী বছর ঘরের মাঠে উপমহাদেশের দলটির বিপক্ষে একটি টেস্ট খেলার পরিকল্পনা করছে ইংলিশরা।

ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফো জানায়, সব কিছু ঠিক থাকলে ২০২২ সালের গ্রীষ্মে ম্যাচটি খেলতে রাজি দুই দেশ। তবে টেস্টটি স্বতন্ত্র কোনো ম্যাচ হবে নাকি গত অগাস্টে শুরু হওয়া সিরিজের শেষ ম্যাচ হবে, তা এখনও নিশ্চিত নয়।

সেপ্টেম্বর ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল ম্যানচেস্টারে। ম্যাচটি ছিল পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ম্যাচ। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণ আতঙ্কের অযুহাত দেখিয়ে খেলা শুরুর ঘণ্টা দুয়েক আগে খেলবে না বলে ঘোষণা দেয় ভারত। ফলে শেষ ম্যাচ না খেলেই ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জেতে ভারত।

ভারতের পক্ষ থেকে ম্যাচ বাতিলের বিষয়টি ইসিবি মেনে নিলেও সন্তুষ্ট নন ইংল্যান্ডের বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটাররা।

এ নিয়ে এখনবধি ভারতের সমালোচনা করে যাচ্ছেন ভন-আর্থারটনরা। করোনা আতঙ্ক আইপিএলে কেন হয় না কোহলিদের সেই প্রশ্নও তোলা হচ্ছে নিয়মিত।

তবে স্থগিত টেস্টটি অনুষ্ঠিত হলে এসব সমালোচনার আগুনে ছাইচাপা পড়বে বলে মন্তব্য বিশ্লেষকদের।

তারা বলছেন, ম্যাচটি হলে বেশিরভাগ ঘাটতিই পূরণ করতে সক্ষম হবে ইংল্যান্ডের বোর্ড। একই সঙ্গে ম্যাচ পরিত্যক্তের দায়ভার নিয়ে দুই বোর্ডের মধ্যে মতবিরোধেরও সমাপ্তি ঘটবে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.