করোনা: বাসা-দোকান ভাড়া মওকুফের দাবি

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে সারাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্য প্রায় বন্ধ! নিম্ন আয়ের মানুষের আয়-রোজগার বন্ধ। এই পরিস্থিতিতে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ সারা দেশের ভাড়াটিয়াদের বাসা ভাড়া, দোকান ভাড়া, বিদ্যুৎ বিল, গ্যাস বিলসহ সব ধরনের ইউটিলিটি বিল মওকুফের দাবি জানিয়েছে ভাড়াটিয়া পরিষদ।

শনিবার (২১ মার্চ) বিকালে ভাড়াটিয়া পরিষদের সভাপতি মোঃ বাহারানে সুলতান বাহার ও সাধারণ সম্পাদক খাতুনে জান্নাত ফাতেমা খানম এক যৌথ বিবৃতিতে এ দাবি করেন।

তারা বলেন, ঢাকা শহরের প্রায় ৯০ শতাংশ মানুষ ভাড়া থাকে। জীবন ও জীবিকার তাগিদে তাদেরকে প্রতিনিয়ত কর্মক্ষেত্রে যেতে হয়। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে সারাবিশ্বে লকডাউন চলছে। বাংলাদেশেরও পরিস্থিতি অনেকটাই লক ডাউনের মত। মানুষের স্বাভাবিক কার্যক্রমকে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। এ অবস্থায় জনশূন্যতার কারণে রাজধানীসহ সারাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্য স্থবির হয়েছে পড়েছে। যে শ্রমিকরা দৈনিক ভিত্তিতে কাজ করতেন তারা বেকার হয়ে পড়েছেন। মরার উপর খাড়ার ঘা হয়ে দেখা দিয়েছে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি। একদিকে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক অন্যদিকে অর্থাভাব। সাধারণ মানুষ হয়ে পড়েছে দিশেহারা। এ পরিস্থিতি থেকে জনগণকে কিছু রেহাই দেওয়ার জন্য আমরা সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই ভাড়াটিয়াদের বাসা ভাড়া ও দোকান ভাড়া মওকুফ করা হোক। বাড়িওয়াদেরকে সরকারি ট্যাক্সে ছাড় দিয়ে তাদের ক্ষতি পুষিয়ে দেওয়া যেতে পারে।

তারা আরও বলেন, সারাবিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করলেও আমাদের দেশে এখনো পরিস্থিতি ততটা খারাপ হয়নি। আমরা সরকারের পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়ে বলতে চাই, আমাদের মতো স্বল্পআয়ের দেশের জনগণকে রেহাই দেওয়ার জন্য ভাড়া মওকুফ করা হোক। তাহলে জনগণ কিছুটা হলেও রেহাই পাবে।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.