চুয়াডাঙ্গায় পানের ঝুড়িতে মিললো ৩১৮ বোতল ফেন্সিডিল

সাজিদ হাসান সোহাগ,চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি:

চুয়াডাঙ্গায় অভিনব কায়দায় মাদক বহনকালে পুলিশের হাতে আটক হয়েছে বিশ্বজিৎ ও আরিফুল নামের দুই মাদক ব্যবসায়ী। তারা একটি ইজিবাইকে পানের ঝুড়িভর্তি ফেন্সিডিল নিয়ে দামুড়হুদা থেকে আলমডাঙ্গায় যাচ্ছিল। আজ বিকেলে বেগমপুর ক্যাম্প পুলিশ দামুড়হুদার হরিসপুর মোড় থেকে তাদেরকে আটক করে। এ সময় পানের ঝুড়িতে ৩১৮ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে পুলিশ।

আটক মাদক ব্যবসায়ী বিশ্বজিৎ আলমডাঙ্গার কুদিয়াখালি গ্রামের মনোরঞ্জনের ছেলে ও আরিফুল চুয়াডাঙ্গা সদরের বোয়ালমারি গ্রামের রমজান আলীর ছেলে। তারা দামুড়হুদা থেকে মাদক এনে আলমডাঙ্গা এলাকায় ছড়িয়ে দেয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কলিমুল্লাহ জানান, মাদক ব্যবসায়ী আরিফুল ইসলাম দামুড়হুদা থেকে কোটালী মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন হরিসপুর গ্রামের দিকে একটি ইজিবাইক নিয়ে যাচ্ছিল। বেগমপুর ক্যাম্পের আইসি আফজাল হোসেন বাইকটিকে চ্যালেঞ্জ করলে আরিফুল পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তাকে আটক করে বাইকে থাকা পানের ঝুড়িতে তল্লাশী করলে বিশেষ কায়দায় রাখা ৩১৮ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার হয়।

চুয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জিহাদ খান জানান, মাদকের মূল হোতা বিশ্বজিৎ বিশেষ কায়দা করে পানের ঝুড়িতে রাখা ফেন্সিডিল ইজিবাইকে তুলে দেয়। আরিফুল সেই ফেন্সিডিল নিয়ে ইজিবাইকে করে আলমডাঙ্গায় নিয়ে যাচ্ছিল। পরে আরিফুলের স্বীকারোক্তিতে বিশ্বজিতকেও আটক করা হয়।

তিনি জানান, আটক বিশ্বজিৎ ও আরিফুলের নামে মাদক নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.