প্যান্টের পেছনেই বানালেন মৌমাছির বাসা

মধুর চাষি মৌমাছি। এ ক্ষুদ্র কীটের কাজই হলো মধুর চাক বানানো। যে চাক থেকেই আমরা সুস্বাদু মধু আহরণ করি। সাধারণত মৌমাছি জঙ্গলের গাছে চাক বানায়, পরিত্যক্ত বাড়ির কোন স্থানেও গড়ে তাদের বাসা। কিন্তু মৌমাছি তাদের বাসা যদি কোন ব্যতিক্রম স্থানে হয় তো কথাই নেই। এ ব্যতিক্রম স্থানে ভীড় করেন সকলেই।

কিন্তু এমন ব্যতিক্রম কি দেখেছেন? যে চাক ঘুরে বেড়ায় মানুষের পিছন পিছন? ভারতের এক নাগরিকের প্যান্টের পিছনে নিতম্বের উপর চির আশ্রয়ের ঘর বানিয়েছে মৌমাছি। এমনই একটি ভিডিও নিজ টুইটার একাউন্ট থেকে ছেড়েছেন দেশটির কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু। খবর আনন্দবাজার পত্রিকা’র।

এ অদ্ভুত ভিডিও গত বুধবার রিজিজু নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে শেয়ার করার পরপরই ছড়িয়ে পরে নেট দুনিয়ায়। ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যক্তির প্যান্টের পিছনে চাক বেঁধে রয়েছে মৌমাছিরা। সেই মৌমাছির চাক সমেত দাঁড়িয়ে আছেন ওই ব্যক্তি। আর তাঁর আশেপাশে থাকা লোকজন ছবি তুলতে ব্যস্ত। ভিডিয়োটি নাগাল্যান্ডের বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী।

কিন্তু কী ভাবে ঐ রকম অদ্ভুত জায়গায় চাক বানালো মৌমাছি? আর সেই মৌমাছিদের হাত থেকে রক্ষা পেতে ওই ব্যক্তি কী করলেন? এই সকল প্রশ্নের কোনও উত্তর পাওয়া না গেলেও এই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করার পরই ভাইরাল হয়ে যায়। নেটিজেনদের হরেক মন্তব্যে ভরে গিয়েছে পোস্টটি।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.