বঙ্গবন্ধুর ১০১তম জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন আইইউবিএটিতে

শাহাদাত হোসেন শাকিল :

যথাযোগ্য মর্যাদায় ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার এন্ড টেকনোলজিতে (আইইউবিএটি) বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করা হয়েছে।

আজ  বুধবার  (১৭ মার্চ) সকালে এ উপলক্ষে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন আইইউবিএটির রেজিস্টার অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান।

নতুন প্রজন্মের কাছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কর্মময় ও বর্ণাঢ্য জীবনের  ঘটনাবলী তুলে ধরতে  এক ভার্চুয়াল আলোচনার  আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে আইইউবিএটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুর রব বলেন বাঙালির বহু বছরের পরাধীনতার শৃঙ্খল ভাঙার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর সুদূরপ্রসারী বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বিশ্বের বুকে জন্ম নিয়েছিল বাংলাদেশ নামের নতুন একটি জাতিরাষ্ট্র। তরুণ সমাজকে সত্য ও সঠিক ইতিহাস ধারণ করে  বঙ্গবন্ধুর মহান আদর্শ বুকে ধারণ করে স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় জ্ঞান-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ  হওয়ার  আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালির এ জন্মদিনে বিনম্র শ্রদ্ধা, সালাম আর হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা জানিয়ে অলোচনায় আরো অংশ নেন আইইউবিএটির শিক্ষকগ্ণ।আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধুর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া এবং মোনাজাত করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য,গভর্নসের সদস্য, উপ উপাচার্য,কলেজ ও ডিপার্টমেন্টের চেয়ার, কো-অর্ডিনেটর,শিক্ষক-শিক্ষিকা, কর্মকর্তা-কর্মচারী , দেশি এবং বিদেশি শিক্ষার্থীরা ,স্টুডেন্ট অ্যাম্বাসেডর এবং  অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন পৃথক ভাবে  শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন।

এছাড়া উত্তরার বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীসহ নানা পেশার মানুষ এ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন।

পরে শহীদদের স্মরণে আইইউবিএটির অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক,শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.