সন্তানকে গলা কেটে খুন করল মা

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় শামীমা খাতুন (৩৫) নামে এক মা ২ বছরের সন্তানকে বঁটি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছেন। ঘাতক শামীমা মানসিক ভারসাম্যহীন বলে জানা গেছে।

সোমবার ভোরে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। শামীমা উপজেলার সনাতনপুর গ্রামের গ্রাম্য ডাক্তার মামুন অর রশিদের স্ত্রী।

জানা গেছে, গ্রাম্য ডাক্তার মামুন অর রশিদের স্ত্রী শামীমা খাতুন (৩৫) মানসিক ভারসাম্যহীন। তাদের ৩টি সন্তান রয়েছে। ছোট সন্তান স্নেহা। বয়স মাত্র ২ বছর।

সোমবার ভোরে শামীমা খাতুন তার ঘুমন্ত মেয়েকে ডেকে তুলে দোতলায় সিঁড়ি ঘরের পাশে রান্নাঘরে নিয়ে যায়। সেখানে বঁটি দিয়ে তার গলা কেটে হত্যা করে।

শামীমার স্বামীর দাবি, শামীমা মানসিক রোগী। এর আগেও সে এমন ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করেছিল।

আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুন্সী আসাদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘাতক শামীমাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.