সরকারের ‘আশ্বাস পেয়ে’ পাটকল শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার

ঢাকায় শ্রম অধিদপ্তরে সোমবার রাতে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকের পর শ্রমিকরা তাদের কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেন বলে খুলনার প্লাটিনাম জুবিলি  জুট মিলের সিবিএ সভাপতি শাহানা শারমিন জানান।

নয় দফা দাবিতে পাটকল শ্রমীক লীগ সিবিএ ননসিবিএ পরিষদের ডাকে সোমবার ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া এ ধর্মঘট আগামী শুক্রবার ভোর ৬টায় শেষ হওয়ার কথা ছিল; সেইসঙ্গে ছিল সকাল ৮টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত রাজপথ ও রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি।

সরকার ঘোষিত জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশন-২০১৫ এর সুপারিশ বাস্তবায়ন, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক কর্মচারীদের প্রভিডেন্ড ফান্ড-গ্র্যাচুইটি, মৃত শ্রমিকের বীমার বকেয়া প্রদান, বরখাস্ত  শ্রমিকদের কাজে পুনর্বহাল, শ্রমিক-কর্মচারীদের নিয়োগ ও স্থায়ী করা, পাট মৌসুমে পাট কেনার বরাদ্দ বাড়ানো, উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মিলগুলোকে পর্যায়ক্রমে বিএমআরই করার দাবি রয়েছে এই নয় দফার মধ্যে।

এর আগে একই দাবিতে গত ২ থেকে টানা ৭২ ঘণ্টা ধর্মঘট করেন পাটকল শ্রমিকরা।

শাহানা জানান, সভায় আগামী ২৫ এপ্রিলের মধ্যে শ্রমিকদের দশ সপ্তাহর মজুরি (পূর্বের হারে) প্রদান, তিন মাসের মধ্যে কর্মচারীদের বকেয়া বেতন পরিশোধ  এবং আগামী ১৭ মে’র মধ্যে শ্রমিকদের মজুরি ফিক্সেশন সম্পন্ন ও পরদিন খাতায় উঠবে অর্থাৎ শ্রমিকদের অনুকূলে মজুরি স্লিপ দেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে।

শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে এ বৈঠকে প্রধান অতিথি ছিলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান।

এছাড়া বিজেএমসির চেয়ারম্যান, পরিচালক, পাটকল শ্রমিকলীগ, সারাদেশের সিবিএ-ননসিবিএ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.