সোনারগাঁয় সাত দিন ধরে গৃহবধু নিখোঁজ

সোনারগাঁ, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের পশ্চিম বেহাকৈর এলাকার স্বামীর সাথে ঘর থেকে বের হয়ে গৃহবধূ নিখোঁজ হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরিবারের লোকজন বহু খোঁজাখোজির পর কোন সন্ধান না পেয়ে গৃহবধূর স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে।অভিযোগ দায়েরের সাত দিন পার হয়ে গেলেও নিখোঁজ গৃহবধূ কোন সন্ধান দিতে পারেনি পুলিশ।
সূত্রে জানা যায়, সোনারগাঁ কাঁচপুর ইউনিয়ন পশ্চিম বেহাকৈর এলাকার জামাল মিয়ার মেয়ে জোনাকী(১৮)র সাথে পূর্ব বেহাকৈর এলাকার আউয়াল হোসেনের পূত্র বাহারুলের (২০) সাথে গত চার মাস পূর্বে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে নব দম্পতির মাঝে কারনে অকারনে মনোমালিন্য লেগেই থাকত। এরই মাঝে গত মাসের ২৮ তারিখে স্বামী বাহারুল তার স্ত্রী জোনাকীকে নিয়ে বসের বাসায় বেড়াতে নিয়ে যাবে বলে বিকেল বাড়ি থেকে বাহির হয়। বাহির হওয়ার পর থেকে একই দিন রাত ৮টার দিকে স্বামী বাহারুল তার শশুর বাড়ির লোকজনের নিকট জানতে চায় জোনাকী বাসায় চলে গেছে কিনা। এসময় বাহারুলের বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গিমা কথায় শশুর বাড়ির লোকজনের সন্দেহ হয়। সেই সাথে জোনাকী বাড়িতে চলে না আসায় আত্বীয় স্বজনের বাসায় খোঁজ খবর নেয়। তাছাড়া স্থানীয় ভাবে বাহারুলকে স্ত্রী জোনাকির ব্যাপারে চাপ প্রয়োগ করলো সে বিভিন্ন হুমকি ধামকি দেয়। তাতে জোনাকীর কোন সন্ধান না পেয়ে অবশেষে জোনাকির পিতা জামাল হোসেন বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় বাহারুলকে বিবাদী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের সাত দিন পার হয়ে যাবার পরও জোনাকীর কোন সন্ধান মিলছেনা বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা।
এ ব্যাপারে তদন্তকারী এ এস আই আমিনুলের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান জোনাকীর মোবাইল ফোনের কল লিস্টের জন্য অপেক্ষায় আছি। কললিস্ট হাতে পেলেই দ্রুত তদন্ত কাজে নেমে পড়ব।
You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.