ত্রিপুরায় অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ গ্রেফতার

টানা জিজ্ঞাসাবাদের পর যুব তৃণমূল কংগ্রেস প্রধান ও পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রোববার ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য থেকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তৃণমূল কংগ্রেসের দাবি, বিজেপির নির্দেশে অন্যায়ভাবে যুব তৃণমূলের রাজ্য সভাপতিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় রোববার সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও উত্তাল হয়ে ওঠে ত্রিপুরা রাজ্যের রাজধানী আগরতলা।

 

এদিন সকাল থেকেই আগরতলা পূর্ব থানায় ছিলেন সায়নী। তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। পরে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার দেখানো হয়।

 

তৃণমূল নেতাদের দাবি, শনিবার রাতে প্রচার সেরে হোটেলে ফিরছিলেন তৃণমূল নেত্রী সায়নী। গাড়িতে চালকের পাশের আসনেই বসেছিলেন তিনি। পেছনের আসনে বসেছিলেন তৃণমূলের সাবেক সংসদ সদস্য অর্পিতা ঘোষ ও সুদীপ রাহা।

 

এরইমধ্যে যানজটে আটকে পড়ে গাড়ি। আশপাশের মানুষ সায়নীকে দেখে হাত নাড়েন এবং খেলা হবে’ স্লোগান দিতে থাকেন।

 

এসময় তৃণমূল নেতা–নেত্রীরাও পালটা স্লোগান দেন। পুলিশের দাবি, তখনই নাকি সায়নীর গাড়ির ধাক্কায় এক ব্যক্তি আহত হন। তার বিরুদ্ধে ৩০৭, ১৫৩ এবং ১২০ বি ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

 

তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ দাবি করেন, ভিত্তিহীন অভিযোগে সায়নীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির যে ধারায় গ্রেফতার করা হয়েছে, তা পুরোপুরি ভিত্তিহীন এবং সাজানো।

 

রাজনৈতিক স্বার্থে পুলিশকে ব্যবহার করা হচ্ছে। আগামীকাল আগরতলায় তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদত অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা আছে।

 

তা বানচাল করতেই সায়নীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারির পরও আদালতে পেশ করা হচ্ছে না। যাতে সায়নী জামিন পেতে পারেন।

 

 

Edited By: K F

 

আরও পড়ুন

রাজনীতি  আন্তর্জাতিক খেলাধুলা লাইফস্টাইল সারাদেশ  

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.