স্বামীর কাছে মাফ চাইবেন শাবনূর!

বিবাহবিচ্ছেদের নোটিশ পাঠানোর পর শাবনূরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলেছেন অনীক মাহমুদ। অস্ট্রেলিয়া থেকে টেলিফোনে পাল্টা অভিযোগ করেছেন শাবনূরও। 

তার সাবেক স্বামী অনীক তাকে ও সন্তানকে দেখতে কখনো অস্ট্রেলিয়া যায়নি উল্লেখ করে শাবনূর বলেন, আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বললাম, সারা জীবনে একবার অস্ট্রেলিয়া আসার প্রমাণ যদি সে দিতে পারে তাহলে তার কাছে মাফ চেয়ে নেব। আজ পর্যন্ত ছেলের পড়াশোনার জন্য যদি একশ টাকাও পাঠায় এবং তার প্রমাণ দিতে পারে, তাহলে ধরে নেব সে বাবার দায়িত্ব পালন করেছে। 

এদিকে, অনিক বলেছেন, তার নতুন বিয়ের প্রমাণ দিতে না পারলে শাবনূরকে মাফ চাইতে হবে। এ প্রসঙ্গে শাবনূর বলেন, নিশ্চয়ই! আর আমি যদি বিয়ের প্রমাণ দিতে পারি তাহলে কি সে মাফ চাইবে? সে নতুন বউকে নিয়ে দেশ-বিদেশ ঘুরে বেড়িয়েছে। সেসব ছবি আছে আমার কাছে। 

শাবনূর আরও বলেন, সবচেয়ে বড় কথা, অনীকের নতুন পাসপোর্টের কপিও আমার কাছে। সেখানে স্ত্রী হিসেবে আমি নই, আছে আয়েশা আক্তারের নাম। বিয়ে না করলে তার নাম ব্যবহার করল কেন? যেসব হোটেলে তারা ছিল, সেখানকার সব রকম তথ্য সংগ্রহ করে তারপর তার বিয়ের কথা ফাঁস করেছি। আমি শাবনূর, আর দশটা সাধারণ মানুষ নই। ফালতু অভিযোগ তোলা আমাকে মানায় না।

আক্ষেপ নিয়ে শাবনূর বলেন, আমি যখন গর্ভবতী ছিলাম তখনো অনীক খোঁজখবর নেয়নি। অস্ট্রেলিয়ায় একাই বাচ্চা জন্ম দিয়েছি। খুশির খবরটা জানিয়েও প্রতিক্রিয়া পাইনি। 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.