বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে দেরি কেন, জানতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় বন্ধ হয়ে যাওয়া অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ে এখনও সশরীরে ক্লাস চালু হয়নি। কেন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ক্লাস চালু করতে দেরি হচ্ছে তা জানতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে মন্ত্রিসভার বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো চলে তাদের নিজস্ব আইনে, সে ক্ষেত্রে তাদের একটা বিষয় আছে।

তার পরও চলতি অক্টোবর মাসের মধ্যে সব বিশ্ববিদ্যালয় খুলে যাবে বলে আশা করছি। চলতি মাসেই সব বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রীকে শিক্ষামন্ত্রী আরও জানান, বড় কোনো বিপর্যয় না ঘটলে ঘোষিত তারিখেই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধ থাকার পর ১২ সেপ্টেম্বর দেশে প্রাথমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হয়।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.