ভারত থেকে পালিয়ে আসা নীলগাই ধরলেন গ্রামবাসী

ভারত থেকে পালিয়ে আসা একটি নীলগাই উদ্ধার করেছেন ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার বৈরচুনা ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রামের লোকজন। তারা চারপাশ থেকে ঘিরে ধরে নীলগাইটি ধরতে সক্ষম হন।

 

নীলগাইটি সুস্থ এবং বিজিবির জিম্মায় আছে বলে জানিয়েছেন বৈরচুনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিমু সরকার। শুক্রবার ৭ জানুয়ারি বিকেলে প্রাণীটিকে ধরে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

 

ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ফয়সাল আমিন হৃদয় বলে, আমরা ১০ থেকে ১২ জন্য মাঠে খেলে বাড়ি ফিরছিলাম। এসময় দেখি নীলগাইটি মাঠে হাঁটছে।

 

পরে আমরা জোরে নীলগাই, নীলগাই বলে হই-হুল্লোড় করলে গ্রামবাসী চারদিক থেকে ঘেরাও করে এটিকে ধরে ফেলে।

 

স্থানীয় তমিজ মিয়া বলেন, অনেক চেষ্টার পর আমরা নীলগাইটি ধরতে সক্ষম হই। এটি অনেক শক্তিশালী, সামলানো যাচ্ছিল না। তাই দড়ি দিয়ে বেঁধে চেয়ারম্যানকে মোবাইলে খবর দিই।

 

গ্রামবাসীর বরাত দিয়ে বৈরচুনা ইউপি চেয়ারম্যান হিমু সরকার বলেন, বিকেলের দিকে একটি নীলগাই ভারতীয় কাঁটাতার সীমান্ত অতিক্রম করে মাধবপুর গ্রামে ঢুকে পড়ে।

 

এরপর গ্রামবাসী নীলগাইটিকে দেখতে পেয়ে চারপাশ থেকে ঘেরাও করে ৪৫ মিনিটের মধ্যে ধরে ফেলে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে বন্যপ্রাণীটিকে বিজিবির কাছে হস্তান্তর হয়।

 

 

পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, উপজেলা প্রাণী চিকিৎসক নীলগাইটি দেখেছেন। এটি সুস্থ রয়েছে। নীলগাইটিকে বিজিবির হেফাজতে রাখা হয়েছে। প্রাণীটির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

 

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, নীলগাই উদ্ধারের খবরটি আমরা এখনও জানি না। খবরটি সঠিক হলে এটি হবে চলতি বছরের প্রথম উদ্ধার করা নীলগাই।

 

তিনি আরও বলেন, এখন পর্যন্ত পাঁচটি নীলগাই উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে তিনটি মারা গেছে।

 

এ বিষয়ে শিঙ্গোর সীমান্ত বিজিবির নায়েক সুবেদার সাইফুদ্দিনের সঙ্গে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

 

 

 

আরও পড়ুন

শিক্ষা  অপরাধ  স্বাস্থ্য  অর্থনীতি  রাজনীতি  আন্তর্জাতিক  খেলাধুলা  লাইফস্টাইল  সারাদেশ

ভারত

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.