করোনা ঠেকাতে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের আহ্বান বিএনপির

বাংলাদেশে আঘাত হানা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়েছে বিএনপি। একইসঙ্গে করোনা ইস্যুতে দলটির পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। 

বুধবার (১০ মার্চ) দুপুরে নয়াপল্টনের বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

তিনি বলেন,‘বাংলাদেশের গণমানুষের প্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বিনা অপরাধে অনির্বাচিত সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়ে ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে কারাগারে আবদ্ধ রয়েছেন। তিনি দারুণভাবে অসুস্থ এবং সুচিকিৎসার অভাবে ও দীর্ঘদিন বন্দি থাকার কারণে তাঁর অসুস্থতা বেড়েই চলেছে। দেশের প্রচলিত আইনে তাঁর চেয়েও কম বয়সী ও কম অসুস্থ এবং বেশি সাজাপ্রাপ্ত সরকারি দলের নেতারা জামিনে মুক্তি পেয়ে মন্ত্রী-এমপি হয়েছে, কিন্তু দেশনেত্রীকে প্রাপ্য জামিন দেয়া হচ্ছে না। তিনি প্রাপ্য সুবিচার থেকে বঞ্চিত।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘অন্তত সুচিকিৎসার জন্য হলেও অতিদ্রুত বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি। ইতোমধ্যে তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকেও সুচিকিৎসার জন্য দেশনেত্রীর মুক্তির আবেদন করা হয়েছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘দেশবাসী আশা করে যে, তাদের সেই আবেদন গৃহিত হবে এবং দেশনেত্রীর মত একজন বিশিষ্ট নাগরিক বিনা চিকিৎসায় নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পাবেন।’

তিনি বলেন, ‘আগামীকাল দেশের সকল মহানগর ও জেলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আশু মুক্তির দাবিতে আমরা সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেছিলাম। কিন্তু দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঘটায় জনসমাবেশে আগতগণ যাতে ভাইরাসের ঝুঁকিতে না পড়েন   সেজন্য আগামীকালের সেই কর্মসূচি আমরা আপাতত স্থগিত ঘোষণা করছি।’

ফখরুল বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের আশু আরোগ্য কামনা করছি এবং এই রোগ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য পরম করুণাময় আল্লাহর নিকট প্রার্থনা জানাচ্ছি। একইসাথে আমরা দল, অঙ্গ দল ও সহযোগী সংগঠন সমূহের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের এবং দেশবাসীকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের প্রয়োজনীয় সেবা প্রদান ও এই রোগ যাতে আর না ছড়ায় সে লক্ষ্যে জনসচেতনামূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনার আহ্বান জানাচ্ছি। দুঃস্থ রোগীদের সুচিকিৎসায় সহায়তা দান এবং রোগ প্রতিরোধের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও সরঞ্জাম নিয়ে জনগণের পাশে থাকার জন্যও আমরা সকলের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।’

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বেগম সেলিমা রহমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.