পরিবারের আবেদনে মুক্তি পাবেন না খালেদা জিয়া: কাদের

মানবিক কারণ দেখিয়ে পরিবার আবেদন করলেই খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।  
 
তিনি বলেছেন, ‘পরিবার বা দলের নেতার কথায় দণ্ডিত আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে না। তবে চিকিৎসকরা তাঁর চিকিৎসার্থে কোনও সুপারিশ করলেই কেবল তা বিবেচনাযোগ্য।’

মঙ্গলবার (১০ মার্চ) ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘যেহেতু মানবিক কারণে বা চিকিৎসার জন্য বেগম জিয়ার জামিন আবেদন আদালত একাধিকবার নাকচ করে দিয়েছে তাই পরিবারের আবেদনে খালেদা জিয়াকে মানবিক কারণে মুক্তি দেয়ার সুযোগ নেই।’

তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া দণ্ডিত হয়ে কারাগারে আছেন। আদালত তাঁর জামিন আবেদন একাধিকবার নাকচ করেছেন। এখন পরিবারের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মানবিক কারণে চিকিৎসার্থে তাঁর মুক্তি চেয়ে যে আবেদন করা হয়েছে তার মূল্য নেই।’

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, ‘খালেদা জিয়ার বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা প্রয়োজন, এ কথা শুধু তার দলের নেতা বা পরিবোরের লোকজন বলছেন। খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় নিয়োজিত চিকিৎসকরা সে কথা বলছেন না। তাই স্বভাবতই দল বা পরিবারের কথায় তাঁর জামিন বা মুক্তির সুযোগ নেই।’

করোনা মোকাবিলায় সরকারের প্রস্তুতির কথা তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনা মোকাবিলায় সরকার প্রস্তুত রয়েছে। এ ভাইরাস প্রতিরোধে সব ধরনের সতর্কতা ও প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে অনুযায়ী রাজধানী ঢাকার সব হাসপাতালে প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জেলা-উপজেলার হাসপাতালগুলোও প্রস্তুত রয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই, তবে করণীয় আছে। তা হলো সতর্ক থাকা, যেখানে-সেখানে ময়লা না ফেলা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘জনস্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই জনসমাগম এড়াতে মুজিববর্ষের কর্মসূচি পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। বিদেশি অতিথিরা আসবেন বলে যারা এ নিয়ে রাজনীতি করছেন তা সঠিক নয়। মুজিববর্ষের কর্মসূচি পুনর্বিন্যাস করায় কোনও রাজনীতি নেই, আছে জনকল্যাণের চিন্তা।’ 

তিনি বলেন, ‘দেশে করোনা সনাক্ত হওয়ার পর যারা মাস্ক, হ্যান্ডওয়াসের কৃত্রিম সংকট তৈরি করার চেষ্টা করছেন তাদের বিরুদ্ধে সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান অভিযান শুরু করেছে। যা আরও জোরদার করা হবে।’

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.