পিছিয়ে গেল বগুড়া জেলা আ.লীগের সম্মেলন

পূর্ব ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী মার্চের মধ্যে বগুড়ার ৯ উপজেলায় আওয়ামী লীগের সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। তারিখ ঘোষণার পর স্থানীয় আওয়ামী রাজনীতি অঙ্গনে বেশ প্রস্তুতি শুরু করলেও কেন্দ্রীয় নির্দেশে স্থগিত করা হয়েছে সম্মেলন। তাছাড়া মার্চে মুজিব শতবর্ষের কর্মসূচি থাকার কারণে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি। তবে এপ্রিলে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা হতে পারে বলে নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন। সে কারণে মার্চে বগুড়ার ৯ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হচ্ছেনা।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলু জানান, বগুড়ার ৯ উপজেলায় আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক জেলা আওয়ামী লীগ সেই অনুযায়ী প্রস্তুতি শুরু করে। তবে মার্চ মাসে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর উৎসবে নানা কর্মসূচি শুরু হবে। এ কারণেই কেন্দ্রীয় কমিটি এ মাসে উপজেলা সম্মেলন স্থগিত করেছে। পরবর্তীকালে এপ্রিল মাসে নতুন তারিখ ঘোষণা হতে পারে বলে তিনি জানান।

জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক, জেলা পরিষদ সদস্য সুলতান মাহমুদ খান রনি জানান, ইতোপূর্বে বগুড়ার সভায় ১৫ মার্চের মধ্যে ৪ উপজেলার সম্মেলনের নির্দেশনা দিয়েছিলেন রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন। সেই অনুযায়ী জেলা কমিটির সভায় দুপচাঁচিয়া উপজেলা ১১ মার্চ, শাজাহানপুর উপজেলা ১৩ মার্চ, শিবগঞ্জ উপজেলা ১৪ মার্চ, নন্দীগ্রাম উপজেলা ১৫ মার্চ, শেরপুর উপজেলা ২৫ মার্চ, কাহালু উপজেলা ২৮ মার্চ, গাবতলী উপজেলা ২৯ মার্চ, আদমদীঘি উপজেলা ৩০ মার্চ এবং বগুড়া সদর উপজেলা ৩১ মার্চ সম্মেলনের দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়। তবে কেন্দ্রীয় কমিটি মার্চ মাসে সম্মেলন স্থগিত করেছে।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান সফিক জানান, সম্মেলন স্থগিত হলেও পরবর্তীকালে তারিখ পুনরায় ঘোষণা করা হবে। ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে সংগঠন শক্তিশালী করতে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। সদর উপজেলায় মুজিব শতবর্ষের কর্মসূচি সফলের লক্ষে এখন  নেতাকর্মীরা কাজ করছে।

এ ব্যাপারে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু জানান, মুজিববর্ষের মার্চে মুক্তিযুদ্ধে মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে দেশব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহন করেছে সরকার। এ জন্য এ মাসে তৃণমূল আওয়ামী লীগের সম্মেলন করা সম্ভব হচ্ছেনা বলে কেন্দ্রীয় নিদের্শনা আছে। তবে পরবর্তীতে সম্মেলনের তারিখ জানা গেলেই জেলার তৃণমূল আওয়ামী লীগকে সম্মেলনের মাধ্যমে আরো শক্তিশালী ও সু-সংগঠিত করা হবে।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.