বিএনপি নেতাদের সততা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মেজর হাফিজ

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবির বিষয়ে বিএনপির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে কড়া সমালোচনা করেছেন দলটির ভাইস-চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেছেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপি এখনও কার্যকরভাবে রাজপথে নামেনি।
তিনি বলেন, আমি ও আবদুল্লাহ আল নোমানসহ আরও বেশকিছু নেতাকর্মী ইতিমধ্যে হাইকোর্টের সামনে একবার নেমেছিলাম। আগামী দিনেও নামব। বিএনপি নেতারা যদি হুকুম নাও দেয়, তাও এই সরকারের পতনের দাবিতে যারা নামবে আমি তাদের সঙ্গে আছি।
বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয়তাবাদী সংগ্রামী দল কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এ সব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে এ সভার আয়োজন করা হয়।
হাফিজ উদ্দিন বলেন, কাঁঠালের যেমন আমসত্ত্বা হয় না, তেমনি আওয়ামী লীগ সরকারের কাছ থেকে বা তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন বিচার বিভাগের কাজ থেকে সুবিচার আশা করা যায় না।
বিএনপি নেতাদের সততা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, দুঃখের বিষয় অনেক কথা মিডিয়ার সামনে বলা যায় না। যাদের প্রচুর টাকা-পয়সা, ধন-দৌলতের অভাব নেই তারা কীভাবে আন্দোলন করবে? আন্দোলনের জন্য সৎ ব্যক্তি প্রয়োজন।
নেতাকর্মীদের উদ্দেশে হাফিজ বলেন, আজকে যদি নেতৃবৃন্দ ব্যর্থ হয়, আমরা ব্যর্থ হই, আপনারা যারা আছেন তারা রাস্তায় নামেন। আমাদের মতো ক্ষুদ্র ব্যক্তিরা আছে আপনাদের সঙ্গে।
বিএনপির এই ভাইস-চেয়ারম্যান বলেন, আজকে দেশবাসী আশা করে বিএনপির আন্দোলন-সংগ্রামে নামবে। জনগণ আশা করে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে নেতাকর্মীরা রাজপথে নামবে। যে কোনো কারণেই হোক হচ্ছে না।
তিনি বলেন, ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির দুই প্রার্থীর পেছনে জনতার ঢল নেমেছিল। যাদের ৫ শতাংশ ভোট নেই তারা কারচুপি করবে সেটা তো জানা কথা। তবে কেন আমরা আন্দোলনের প্রস্তুতি নিলাম না। কেন নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের সঙ্গে ঢাকার আকাশ-বাতাস কম্পিত হল না। এই নির্বাচনে বিএনপির সাহসী কর্মীরা নিশ্চয়ই নামতো। কিন্তু নীরবে-নিভৃতে বাড়িতে চলে গেলাম আমরা।

হাফিজ উদ্দিন বলেন, আজকে আমি হতাশ হওয়ার মতো কোনো কথা বলতে চাই না। কারণ বিজয় আমাদের অবশ্যম্ভাবী। এই দেশবিরোধী সরকার টিকতে পারে না, আমাদের শুধু রাস্তায় নামতে হবে।
আয়োজক সংগঠনটির সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন হানিফের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন- নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আ ন ম এহসানুল হক মিলন, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সম্পাদক হেলেন জেরিন খান প্রমুখ।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.