বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট সারা দেশে গড়ে তোলা হবে, প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারির সুবিধা সারা দেশের মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার।

 

মঙ্গলবার ২৯ মার্চ বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিষয়ে ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধন এবং শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে মুজিব কর্নার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

 

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়কারী সামন্ত লাল সেনসহ প্লাস্টিক সার্জারি বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত ছিলেন।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দাহ্য পদার্থ ব্যবহার ও সংরক্ষণে প্রশিক্ষণের ওপর জোর দেওয়ার পাশাপাশি অগ্নিদগ্ধ হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার বিষয়ে স্কুল পর্যায়ে শিক্ষাদানের ব্যবস্থা নিতে হবে।

 

তিনি বলেন, ৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বিভিন্ন সরকার ক্ষমতায় এসেছে কিন্তু দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করেনি। এ সময় প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নয়নে আওয়ামী লীগ সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর হাত ধরে মাত্র পাঁচটি শয্যা নিয়ে প্লাস্টিক সার্জারি ওয়ার্ডের যাত্রা শুরু হয়েছিল। আজ বিশ্বের সবচেয়ে বড় ৫০০ শয্যার প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট হয়েছে।

 

আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসেই অগ্নিদগ্ধদের চিকিৎসায় উদ্যোগ গ্রহণ করে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্যসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছে সরকার। বেসরকারি চিকিৎসা খাতে, চিকিৎসা সেবা ও উন্নয়নে কাজ করছে সরকার।

তিনি বলেন, এবার বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারির সব সুবিধা পৌঁছে দিতে বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট স্থাপন করা হবে।

 

স্থাপত্য প্রকৌশলীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রান্নাঘর যেন খোলামেলা ও আলো-বাতাস থাকে ভবন নির্মাণে এ বিষয়টি গুরুত্ব দিতে হবে। অগ্নিদগ্ধ হলে প্রাথমিক অবস্থায় কীভাবে ব্যবস্থা নেবে, কী করবে, প্রাথমিক চিকিৎসা কীভাবে নেবে সে বিষয়ে স্কুল পর্যায়ে শিক্ষা থাকা দরকার। এ ছাড়া উন্নত ও আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসার জন্য দেশে চিকিৎসা বিজ্ঞানে আরও গবেষণার ওপর গুরুত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার পর ১ লাখ মানুষ সেবা নিয়েছেন। এ পর্যন্ত ১০ হাজার জনের অপারেশন হয়েছে এবং সাড়ে ১৩ হাজার লোক জরুরি সেবা নিয়েছে।

 

কোভিড ভ্যাকসিন কার্যক্রমে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের অষ্টম স্থানে রয়েছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, এখন পর্যন্ত দেশের ৭৫ ভাগ মানুষকে মোট ২৩ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।

 

সার্জারি ইউনিট সার্জারি ইউনিট সার্জারি ইউনিট 

আরও পড়ুন

শিক্ষা  অপরাধ  স্বাস্থ্য  অর্থনীতি  রাজনীতি  আন্তর্জাতিক  খেলাধুলা  লাইফস্টাইল  সারাদেশ

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.