মেদ কমাতে যা খাবেন

মেদ বা চর্বি নিয়ে বর্তমানে প্রায় সবাই কম-বেশি চিন্তিত।মেদ কমাতে অনেকেই ডায়েট-জিম করেন।তারপরও মেদ কমাতে পারেন না।মেদ জমলে চলা-ফেরায় কষ্ট হয়, পাশাপাশি শরীরেও অস্বস্তি তৈরি হয়।কিন্তু এমন কিছু খাবার রয়েছে, যা খেলে মেদ কমবে, একই সঙ্গে শরীরও থাকবে সুস্থ ও সুন্দর।

Image result for মেদ কমাতে যা খাবেন



দেখে নিতে পারেন, যেসব খাবার মেদ কমাতে সাহায্য করে-

শাক-সবজি: 
মেদ কমাতে কম ক্যালরি ও অধিক ফাইবারযুক্ত খাবার খেতে হবে।ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খেলে হজম ভালো হয় এবং পেটের অতিরিক্ত মেদ কমাতে সাহায্য করে।এজন্য খেতে পারেন শসা, পালংশাক, ঢেঁড়স, লাউ, ক্যাপসিকামসহ বিভিন্ন শাক-সবজি।

ফল: 
ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল মেদ কমাতে সাহায্য করে।বিশেষ করে আপেল, কমলা, আঙ্গুর, লেবু, পেঁপে, মাল্টা এবং টমেটো মেদ কমায়।এসব ফল মেদ কমানোর পাশাপাশি রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।তাই এগুলো খেতে পারেন নিয়মিত।

মশলা: 
মশলা জাতীয় কিছু খাবারও মেদ কমায়।মরিচ খাবারের স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি খাবার হজমে সাহায্য করে এবং শরীরের অতিরিক্ত ক্যালরি পোড়াতে সাহায্য করে।রসুনে বিদ্যমান এলিসিন এবং এলাচে বিদ্যমান থার্মোজেনিক এজেন্ট মেদ কমায়।

ডিম: 
ডিমে রয়েছে প্রায় সব রকম পুষ্টি।প্রতিদিন সকালে ডিম খেলে সারাদিন বেশি খাওয়ার প্রবণতা থাকে না। 

দুগ্ধজাত খাবার:  
টকদই শরীরের মেদ কমাতে খুবই কার্যকর।পাশাপাশি শরীর ঠান্ডা রাখতে ও খাবার হজমে সাহায্য করে।

বাদাম: 
বাদামে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন এবং ফাইবার।এটি খেলে দীর্ঘসময় পেট ভরা থাকায় অতিরিক্ত খাওয়ার প্রবণতা থাকে না।ফলে মেদও বাড়ে না।

এছাড়া মেদ কমাতে ও শরীর সুস্থ চাঙ্গা রাখতে খাবারে অতিরিক্ত লবণ ও চিনি বাদ দিতে হবে। বিশেষজ্ঞরা, চিনি ও লবণকে সাদা বিষ বলে আখ্যায়িত করেন। কারণ এই দু’টি জিনিস অতিরিক্ত খেলে অনেক রোগের সৃষ্টি হয়। ফলে লবণ ও চিনি যত কম খাওয়া যায়, ততই মঙ্গল।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.