১৮ বছরের দাম্পত্যের ইতি টানলেন ধানুশ-ঐশ্বর্য

ফের ভারতের দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে বিচ্ছেদের খবর। সম্প্রতি বিবাহবিচ্ছেদ ঘটেছে সুপারস্টার নাগা চৈতন্য ও সামান্থার। এবার সেই রেশ কাটতে না কাটতেই আরও একটি বিবাহবিচ্ছেদ।

 

এবার নিজের বিবাহবিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করলেন দক্ষিণী সুপারস্টার ধানুশ

দক্ষিণের সব থেকে বড় সুপারস্টার রজনীকান্তের মেয়ে ঐশ্বর্যের সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করলেন ধানুশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে নিজেদের আলাদা হওয়ার খবর জানান তিনি।

 

১৮ বছর ধরে বিবাহিত জীবনে থাকার পর আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ধানুশ ও ঐশ্বর্য।

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টুইটে ধানুশ লিখেছেন- ১৮ বছরের একসঙ্গে থাকা। বন্ধু, দম্পতি এবং অভিভাবক হিসেবে। একে অপরের শুভাকাঙ্ক্ষী হিসেবে।

 

এ যাত্রা কেবল একে অপরের সঙ্গ দেওয়ার, বোঝার, বেড়ে ওঠার। একে অপরের জন্য নিজেদের মধ্যে ছোট ছোট বদল ঘটানো এবং তার সঙ্গে মিলেমিশে যাওয়ার দিন ছিল।

 

আজ এ মুহূর্তে আমরা দুজনে এমন জায়গায় দাঁড়িয়ে আছি, যেখানে আমাদের পথ আলাদা হয়ে গেছে। ঐশ্বর্য এবং আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, দম্পতি হিসেবে আলাদা পথে হাঁটব।

 

স্বতন্ত্রভাবে নিজেদের চেনার জন্য সময় নেব। আমাদের সিদ্ধান্তকে সম্মান দিয়ে আমাদের ব্যক্তিগত পরিসরে থাকতে দিন দয়া করে। এ মুহূর্তে এ সিদ্ধান্তের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে আমাদের।

 

গায়িকা এবং পরিচালক ঐশ্বর্যও ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে একই বিবৃতি পোস্ট করেছেন। নিচে লেখা— আলাদা করে আর মন্তব্যের প্রয়োজন নেই। কেবল আমাদের ভালোবাসার প্রয়োজন।

 

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালের ১৮ নভেম্বর ধনুষের সঙ্গে দক্ষিণী সুপারস্টার রজনীকান্তের বড় মেয়ে ঐশ্বর্যের বিয়ে হয়। যাত্রা এবং লিঙ্গা, দুই পুত্রসন্তানের অভিভাবক তারা। বড় ছেলের জন্ম ২০০৬ সালে। ২০১০ সালে ছোট ছেলের জন্ম দিয়েছেন ধানুশ-ঐশ্বর্যা।

 

 

 

 

আরও পড়ুন

শিক্ষা  অপরাধ  স্বাস্থ্য  অর্থনীতি  রাজনীতি  আন্তর্জাতিক  খেলাধুলা  লাইফস্টাইল  সারাদেশ

১৮ বছরের ১৮ বছরের ১৮ বছরের

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.