চালক ঘুমে, যাত্রীবাহী বাস খাদে

১৫ জন। মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ভোরে ভুঞাপুর-টাঙ্গাইল আঞ্চলিক মহাসড়কের উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের যদুরপাড়া এলাকায় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত ছায়েদ আলী খান নওগাঁ জেলার পোরশা উপজেলার কোচপুর গ্রামের মরহুম নুর মোহাম্মদের ছেলে।

নিহতের ভাতিজা ও ঐ বাসের যাত্রী আমিনুল ইসলাম বলেন, চাচাসহ তিনজন ঢাকা যাওয়ার জন্য রাতে নওগাঁ থেকে রওনা হয়েছিল। বাসটি বঙ্গবন্ধু সেতু পাড় হয়ে মহাসড়ক দিয়ে না গিয়ে ভুঞাপুর হয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। গাড়ি সঠিকভাবে চালাতে চালককে বারবার সতর্ক করা হয়েছিল। পরে বাসটি সড়কের বাক ঘুরতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদের পানিতে পড়ে যায়।

যাত্রীরা জানান, চালক ঘুমিয়ে বাস চালাচ্ছিলেন। বারবার চালককে সতর্ক করার পরও দুর্ঘটনা ঘটলো। দুর্ঘটনার পর বাসের চালক, সুপারভাইজার ও হেলপার পালিয়ে গেছে।

টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিসের উপ সহকারি পরিচালক মো. আলাউদ্দিন বলেন, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে গিয়ে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বাসটি সড়কের বাক ঘুরতেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদের পানিতে পড়ে যায় বলে তিনি নিশ্চিত করেন।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.