Mon. Dec 9th, 2019

অমিতাভ বচ্চনকে প্রধানমন্ত্রী করা ভালো: প্রিয়াংকা

কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াংকা গান্ধী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিশ্বের সবচেয়ে বড় অভিনেতা।

দেশের জনগণকে তিনি কিছুই দেননি।

এর থেকে অমিতাভ বচ্চনকেই প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নির্বাচিত করলে ভালো হতো।

রোববার লোকসভা নির্বাচনের সপ্তম দফার বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুরে যান প্রিয়াংকা।

সেখানেই এ মন্তব্য করেন তিনি। এদিন একই সুরে বিজেপি ও নির্বাচন কমিশনকে তুলোধনা করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে বিজেপিকে সব সুবিধা দিয়েছে কমিশন। মোদি যা খুশি বলে যাচ্ছেন। আমরা বলতে গেলেই বাগড়া দেয়া হচ্ছে।’

নির্বাচনে বিজেপি টাকার খেলা খেলছে বলেও অভিযোগ করেন রাহুল। বলেন, ‘কংগ্রেসের চেয়ে ২০ গুণ টাকা বিজেপির। কিন্তু সততাই আমাদের সম্পদ।’ লোকসভার শেষ ধাপে ৫৯টি আসনের মধ্যে উত্তরপ্রদেশের কয়েকটি আসনে ভোট রয়েছে। এ ধাপের আগে বৃহস্পতিবার রাজ্যের মির্জাপুরে এক জনসভায় প্রিয়াংকা বলেন, ‘আপনারা নিশ্চয় বুঝেছেন, বিশ্বের সবচেয়ে বড় অভিনেতাকে আপনারা প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছেন।

এর থেকে আপনারা অমিতাভ বচ্চনকেই প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করতে পারতেন। কারণ, এরা কেউই আপনাদের জন্য কিছুই করবেন না। এই নির্বাচনে আমরা গণতন্ত্র এবং গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে বাঁচানোর জন্য লড়াই করছি। প্রত্যেক নাগরিকের উচিত খুবই দায়িত্বের সঙ্গে নিজের ভোট দেয়া।’

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। একসময় গান্ধী পরিবারের খুব ঘনিষ্ঠ ছিলেন। প্রিয়াংকার বাবা রাজীব গান্ধীর ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন। এমনকি রাজীব গান্ধী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর অমিতাভ এলাহাবাদের সংসদ সদস্য হন। কিন্তু বোফর্স দুর্নীতিতে নাম জড়ানোর পর তিনি রাজনীতি থেকে ইস্তফা দেন। পরে অবশ্য অমিতাভ ক্লিনচিট পেয়েছিলেন। কিন্তু এর পর থেকেই গান্ধী পরিবারের সঙ্গে ক্রমেই তার দূরত্ব সৃষ্টি হয়। ১৯৯১ সালে রাজীব গান্ধীর মৃত্যুর পর এই দূরত্ব আরও বেড়ে যায়।

গডসে মেরেছে একজন রাজীব গান্ধী ১৭ হাজার : রাত পোহালেই লোকসভার সপ্তম দফা ভোট ভারতের। শুরুটা করেছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এবার তার পথে হেঁটেই প্রয়াত সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন কর্নাটকের বিজেপি সংসদ সদস্য নলীন কুমার কাটেল।

ভারতের জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসকে ‘দেশভক্ত’ বলায় গোটা দেশে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন ভোপালের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা। এবার সেই গডসের সঙ্গেই রাজীব গান্ধীর নাম জড়িয়ে মন্তব্য করলেন কর্নাটকের এই বিজেপি সংসদ সদস্য।

প্রজ্ঞার মন্তব্য নিয়ে সমালোচনার ঝড় চলাকালীনই টুইটে নলীন লেখেন, ‘গডসে একজনকে মেরেছিল, মুম্বাই হামলার সময় কাসভ ৭২ জনকে মেরেছিল আর রাজীব গান্ধী মেরেছিল ১৭ হাজার মানুষকে।

এবার বিচার করুন, কে সবচেয়ে বেশি নির্দয় ছিল?’ আর তার এই মন্তব্যের পর দেশজুড়ে আবারও সমালোচনার ঝড় উঠতে শুরু করেছে। যদিও পরে সেই টুইটটি তিনি নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে মুছে দেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়া। এদিকে, মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে ‘দেশভক্ত’ বলায় বিতর্কের মুখে পড়ে অবশেষে পিছু হটলেন ভোপালের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা। এই মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন তিনি। অস্বস্তি কমাতে বিজেপির তরফে বলা হল ‘এই মন্তব্য সাধ্বীর ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে দলের কোরনা সম্পর্ক নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *