Mon. Jan 27th, 2020

চুয়াডাঙ্গায় হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি.চুয়াডাঙ্গায় শাহিন হত্যা মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার বিকেলে আসামির উপস্থিতিতে চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রবিউল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন।  রায় ঘোষণার পর আসামিকে পুলিশ প্রহরায় চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেয়া হয়।
সাজাপ্রাপ্ত আসামি হলো চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত আজিজ বিশ্বাসের ছেলে আলম বিশ্বাস। মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, দামুড়হুদা উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক বিশ্বাসের দুই ছেলে শাহিন ও রাসেল বিশ্বাসের সাথে একই গ্রামের ডালিম বিশ্বাসের পূর্ব বিরোধ ছিল। ২০১৪ সালের ৪ এপ্রিল সকালে ডালিম বিশ্বাস গ্রামে প্রকাশ্যে গাঁজা সেবন করছিল। বিষয়টি রাসেল বিশ্বাস দেখে নিষেধ করে। এরই জের ধরে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে রাসেলের ছোট ভাই শাহিনও ঘটনাস্থলে এলে স্থানীয়রা উভয় পক্ষকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। বাড়ি ফেরার পথে গ্রামের একটি চায়ের দোকানের সামনে শাহিনকে একা পেয়ে লোহার রড ও বাটাম দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে হত্যা করে আলম বিশ্বাস, তার ছেলে ডালিম বিশ্বাসসহ বেশ কয়েক জন মিলে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে সদর হাসাপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় নিহতের বাবা দামুড়হুদা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দামুড়হুদা থানার এসআই আবু জাহের ভূইয়া দুই জনকে অভিযুক্ত করে ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। সোমবার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আসামির উপস্থিতিতে ১৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে আলম বিশ্বাসকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়। অন্য আসামি ডালিম বিশ্বাসকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *